ঘরে বসে ইউটিউব দেখে সন্তানের জন্ম দিল কিশোরী, অতঃপর

ঘরে বসে ইউটিউব দেখে সন্তানের জন্ম দিলো ভারতের কেরালার মলপ্পুরমে ১৭ বছরের কিশোরী।
তবে এই ঘটনাটি ঘুণাক্ষরেও টের পাননি কিশোরীর বাড়ির লোকেরা।
শেষপর্যন্ত মেয়ের ঘর থেকে বাচ্চার কান্না শুনে দরজায় ধাক্কা দেন তারা।

দেখা যায়, কিশোরী মেয়ের কোলে শুয়ে কাঁদছে সদ্যভূমিষ্ঠ।
তড়িঘড়ি মা ও সন্তানকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।
পুলিশ সন্তানের জন্মদাতা যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

কেরালের মলপ্পুরমে বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকে ১৭ বছরের ওই কিশোরী।
অভিযোগ, গত সপ্তাহে নিজের ঘর থেকে একেবারেই বেরোয়নি সে।
জিজ্ঞেস করলে উত্তর আসে বিরক্ত কোরও না, স্কুলের অনলাইন ক্লাস চলছে।
সন্দেহ হয়নি পেশায় নিরাপত্তারক্ষী বাবা ও দৃষ্টিহীন মায়ের। এ ভাবেই চলছিল।

অন্যদিকে, নিজেকে ঘরবন্দি করে প্রসব বেদনায় অস্থির ১৭ বছরের কিশোরী দেখতে থাকে কী ভাবে নিজে নিজেই সন্তানের জন্ম দেওয়া যায়।
এ কাজে সে বেছে নেয় ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ইউটিউব-কে।
শেষ পর্যন্ত ২৪ অক্টোবর ইউটিউবের ভিডিও দেখে শেখা পদ্ধতি অবলম্বন করেই সন্তানের জন্ম দেয় সে।

এ পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। কিন্তু সমস্যা হয় তিন দিন পর, যখন সন্তান কেঁদে ওঠে।
পাশের ঘরে মায়ের সন্দেহ হয়, শিশুর চিৎকার আসছে কোথা থেকে? দরজা ধাক্কা দিতেই স্পষ্ট হয় সব কিছু।

দ্রুত মা ও শিশুকে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমানে মা ও শিশু, দুজনেই সুস্থ আছে বলে জানা গেছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.