গোপালগঞ্জে বশেমুরবিপ্রবিতে সাপের উপদ্রব, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) সাপের উপদ্রব বেড়েছে।
সম্প্রতি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন রাস্তা, মাঠ, স্কুল, লেকপাড় ও হল সংলগ্ন বিভিন্ন স্থানে দেখা মিলছে বিষধর সাপের।
সর্বশেষ রোববার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল সংলগ্ন রাস্তা ও স্বাধীনতা দিবস হলের সামনে গোখরা প্রজাতির সাপের দেখা মিলেছে। এতে আতঙ্কে রয়েছেন আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গত ৭ অক্টোবর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খুলে দেওয়া হয়।
দীর্ঘ ১৮ মাস বন্ধ থাকায় ক্যাম্পাসে ঝোপঝাড় বেড়েছে।
এগুলো পরিষ্কার না থাকায় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে সাপ দেখা যাচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ক্লাস শুরুর আগে বিভিন্ন জায়গার ঝোপঝাড় পরিষ্কার করলেও এখনো বেশ ঝোপঝাড় রয়েছে।
এরমধ্যে প্রশাসনিক ভবন সংলগ্ন মাঠ, কেন্দ্রীয় খেলার মাঠের চারপাশ, নিষিদ্ধ চত্বর ও শিক্ষকদের ডরমিটরি চারপাশ আগাছা, লতাপাতা ও ঝোপঝাড়ে পরিপূর্ণ।
এসব ঝোপঝাড় থেকে প্রতিনিয়ত সাপ বেরিয়ে আসছে।

রাসেল আহসান নামের বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী বলেন, ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গা এখনো ঝোপঝাড় মুক্ত হয়নি।
করোনাকালীন সময়ে প্রকৃতির আপন গতিতে বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সাপের উপদ্রবও বেড়েছে।
এ জন্য প্রতিদিনই আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছি।

এদিকে নিরাপদ চলাচল ও সাপের বিষ নিবারক ভ্যাক্সিনের জন্য রেজিস্ট্রার বরাবর আবেদন করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
আবেদনপত্রে ক্যাম্পাসের ঝোপঝাড় মুক্ত ও জেলা সদর হাসপাতালে এন্টিভেনম ভ্যাক্সিন সরবরাহের জন্য আবেদন করা হয়।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.