রাশিয়ার বিমান আটক করতে পারবে যুক্তরাজ্য

ইউক্রেন ইস্যুতে রাশিয়ার ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে যুক্তরাজ্য। রাশিয়ার বিমান ও মহাকাশ প্রযুক্তির ওপর নতুন কিছু নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করেছে দেশটি।

নতুন এই নিষেধাজ্ঞার ফলে এখন থেকে যুক্তরাজ্যে থাকা রাশিয়ার বিমান আটক করতে পারবে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া যুক্তরাজ্যে রাশিয়ার কোনো বিমানের প্রবেশ, অবতরণ বা চলাচল অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে বলে বিবিসি বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছেন।

এই নিষেধাজ্ঞার ফলে রাশিয়া ও ক্রেমলিন ঘনিষ্ঠরা আরও বেশি অর্থনৈতিক সমস্যায় পড়বেন বলে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস জানিয়েছেন।

তবে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বিমান এই নিষেধাজ্ঞার লক্ষ্যবস্তু নয় বলে বিবিসি নিউজনাইট পলিটিক্যাল এডিটর নিক ওয়াট জানিয়েছেন। কারণ আগেই সেদেশের বিমান চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

কিন্তু নতুন নিষেধাজ্ঞার আওতায় রাশিয়ার সেই প্রাইভেট জেট বিমানগুলোকে লক্ষ্য করা হবে, যেগুলো তৃতীয় কোনো দেশে তালিকাভুক্ত এবং রাশিয়ান ধনকুবেররা ব্যবহার করেন বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এদিকে, ইউক্রেনে আগ্রাসনের জেরে রাশিয়া থেকে জ্বালানি আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এ ঘোষণা দেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে এই নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে বেড়ে যাবে গ্যাসের দাম।

জ্বালানির ওপরই রাশিয়ার অর্থনীতি নির্ভরশীল। আর যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার জ্বালানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় এখন চাপের মুখে পড়বেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

রাশিয়ার জ্বালানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার ব্যাপারে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, আমাদের রাশিয়ার জ্বালানির প্রয়োজন নেই। আমরা পুতিনের যুদ্ধের সহযোগী হতে পারব না।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.