সৌদি থেকে ১৯ লাখ টাকা এনে দিলেন এসিল্যান্ড

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার তালতলী গ্রামের মৃত রাজ্জাক সরকারের মেয়ে মালা আক্তার।
১৭ বছর আগে কাজের সন্ধানে সৌদি আরব পাড়ি জমিয়েছিলেন। ভেবেছিলেন দেশের গণ্ডি পেরিয়ে প্রবাসে গেলে হয়তো কর্মের সন্ধান পাবেন এবং জীবন মান উন্নত হবে।
কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস, সৌদি আরবের রিয়াদে আব্দুর রহমান নামে একজনের বাসায় ১৭ বছর বিনা বেতনে কাজ করার পর গত ৪ মাস আগে তাকে শূণ্য হাতে দেশে ফিরতে হয়েছে।

জানা গেছে, গৃহবন্দী হয়ে বিনা বেতনে কাজ করতে করতে হাঁপিয়ে উঠেছিলেন মালা।
তাই গত ৫ বছর ধরে দেশে আসার জন্য মালিককে অনুরোধ করেন তিনি।
পাঁচ বছর পর মালিক তাকে অনুমতি দেন। তবে মালার ১৭ বছরের পরিশ্রমের পাওনা ৮০ হাজার রিয়াল (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৯ লাখ টাকা) রাজি হয়নি আব্দুর রহমান।

দেশে আসার পর মালা আক্তার বিভিন্ন ভাবে তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন।
এরপর গত ৩ মাস আগে মতলব উত্তর উপজেলার এসি ল্যান্ড মোঃ হেদায়েত উল্লাহর কাছে সৌদি দূতাবাস থেকে মালার তথ্য চাওয়া হয়।
তিনি তথ্য দিয়ে সৌদি দূতাবাসকে মালার পাওনা টাকা বুঝিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেন।

সর্বশেষ মঙ্গলবার (৭ জুন) মালার একাউন্টে রেমিটেন্স বোনাসসহ প্রায় সাড়ে ১৯ লাখ টাকা জমা হয়।
হেদায়েত উল্লাহ এই তথ্য জানার পর মালা আক্তারকে তার কার্যালয়ে ডেকে এ খবর জানান। এতে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন মালা।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.