সাড়ে ৯ ঘণ্টা পর ছাড়ল বিমানের ফ্লাইট

বাংলাদেশ ঢাকা থেকে সৌদি আরবের রিয়াদগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ফ্লাইট শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে। এতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যাত্রীদের অপেক্ষা করতে হয়।

বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইঞ্জিনে পাখি আটকে যাওয়ায় ফ্লাইট ছাড়তে দেরি হয়। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) গভীর রাত থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত প্রায় ৯ ঘণ্টা ৩০ মিনিট ধরে যাত্রীরা ফ্লাইটের জন্য অপেক্ষা করেছেন।

অপেক্ষারত যাত্রীরা জানান, ফ্লাইট ছাড়ার নির্ধারিত সময় ছিল বৃহস্পতিবার রাত ১টা ১৫ মিনিট। তাদের টিকিটেও ফ্লাইট ছাড়ার এই সময় উল্লেখ আছে।

ফ্লাইটটি ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও অন্য আরেকটি প্লেনে সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা ছাড়েন যাত্রীরা।

এ সময় বিমানবন্দরে অপেক্ষায় থাকা যাত্রীরা জানান, বিমান কর্তৃপক্ষ সঠিকভাবে তাদের কিছুই জানায়নি।

এ ব্যাপারে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার বলেন, বিমানের ইঞ্জিনে পাখি ঢুকে যাওয়ায় ফ্লাইট ছাড়তে দেরি হয়েছে। তবে বিমানবন্দরে যাত্রীদের সার্বক্ষণিক খোঁজখবর এবং সেবা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে, বিমানবন্দরে প্রকৌশলীরা বিমানের ইঞ্জিনে আটকে যাওয়া পাখি বের করার চেষ্টা করেন।

জানা যায়, ফ্লাই দুবাই এয়ারওয়েজের ত্রুটি সারানোর জন্য সকাল সাড়ে ৮টায় দুবাই থেকে একটি প্রকৌশলী টিম চট্টগ্রামে আসেন। দুই ফ্লাইটের ত্রুটি সারানোর পর গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। এর আগে, চট্টগ্রাম থেকে দুবাই এবং মাস্কাটগামী দুটি আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ইঞ্জিনে পাখি ঢোকায় যাত্রা বাতিল করে কর্তৃপক্ষ। সুরক্ষা এবং যাত্রীদের নিরাপত্তা বিবেচনায় ফ্লাইট বাতিল করা হয়।

 

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.