বিএনপির রাজনীতি বিদ্যুৎবিহীন খাম্বার মতো: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির রাজনীতি বিদ্যুৎবিহীন খাম্বার মতো আশাহীন ও অন্তঃসারশূন্য। তাদের কাজ হলো বাঁকা পথে চলা, অসত্য তথ্য ও বিভ্রান্তি ছড়ানো। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

বিদ্যুৎতের জাতীয় গ্রিডে ট্রিপ করা একটি টেকনিক্যাল বিষয়; যে কোনো সময় এমনটা ঘটতে পারে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও গ্রিড ট্রিপ করে। কিন্তু দেখার বিষয় হচ্ছে কত সময়ের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা যায়।

মন্ত্রী বলেন, গ্রিড বিপর্যয়ের পর গত মঙ্গলবার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সক্ষম হয় সরকার।

২০০৩ সালে বিএনপির শাসনামলে ন্যাশনাল গ্রিডে বিপর্যয় ঘটলে তা পুনরুদ্ধারে কয়দিন সময় লেগেছিল, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের কাছে এ প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির শাসনামলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা, দিনের পর দিন বিদ্যুৎ ছিল না, সে ইতিহাস কি বিএনপির মনে আছে?

বিদ্যুৎখাতে বিএনপি জাতিকে দীর্ঘমেয়াদি অমানিশার আঁধার উপহার দিয়েছিল উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি দুর্নীতির অভিযোগ করে, সরকারের অন্ধ সমালোচনা করে – অথচ বিদ্যুৎখাতের বিভিন্ন প্রকল্পে দাতা সংস্থার অর্থায়ন থাকায় সরকারের পাশাপাশি দাতা সংস্থাও এ বিনিয়োগ নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণে রাখে। এতে অনিয়ম-দুর্নীতির কোনো সুযোগ নেই।

তারা অন্তরে যা ভাবেন, তা প্রকাশ পায় বলে বিএনপির মুখে সব সময় অনিয়ম, দুর্নীতির কথা শোভা পায় বলেও মন্তব্য করেন এ আওয়ামী লীগ নেতা।

সরকার নয়, বিএনপিই দেশের জন্য বড় ধরনের বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, একটি দায়িত্বহীন এবং ব্যর্থ বিরোধীদল হিসেবে বিএনপি জাতির ঘাড়ে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে আছে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির হাতে দেশ নিরাপদ নয়, তারাই দেশকে এবং দেশের সম্ভাবনাকে নস্যাৎ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ বছর শারদীয় দুর্গোৎসব অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হওয়ায় সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের নিবিড় তদারকির কারণে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি কোনো অঘটন ঘটাতে পারেনি।

আর এ কারণেই বিএনপির মনের জ্বালা আরও বেড়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.