বিমানের সাথে এবার সৌদিয়া এয়ারের ক্যাপাসিটি লস

SaudiArabianAirlinesBannerহজ্বযাত্রীদের টিকিট চূড়ান্ত না করায় গত কয়েক দিন ধরে বাতিল করা হচ্ছে বিমানের হজ্ব ফ্লাইট। গতকাল শুক্রবার আরো ২টি হজ্ব ফ্লাইট বাতিল করতে হলো। এ নিয়ে বাতিল হলো মোট ১৬টি হজ্ব ফ্লাইট। এত দিন শুধু বিমানের হজ্ব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এবার সৌদিয়া এয়ারলাইনসের হজ্ব ফ্লাইটও বাতিল করতে হলো। বিমানের পাশাপাশি সৌদিয়া এয়ারেরও ক্যাপাসিটি লস শুরু হলো। এখনই এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া না হলে পরবর্তীতে হজ্বযাত্রী নিয়ে মহাসংকট সৃষ্টি হতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

গতকাল শুক্রবার হজ্ব ফ্লাইট শিডিউলে দেখা গেছে, ১৯ আগস্টের ২টা ২০ মিনিটের সৌদী এয়ারলাইনসের ফ্লাইট এসবি ৫৪২৫ বাতিল করা হয়েছে, সেই সাথে বিমানে ১৩টা ৫ মিনিটের ফ্লাইট বিজি ১০৫১ বাতিল করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গতকাল দু‘টি হজ্ব ফ্লাইট বাতিল হলো। এ নিয়ে মোট ১৬টি ফ্লাইট বাতিল হওয়ায় প্রায় ৭ হাজার হজ্বযাত্রীর ক্যাপাসিটি লস হলো। জেদ্দা বিমান বন্দরে অবতরণের জন্য শ্লট বৃদ্ধি করা না হলে এই ৭ হাজার হজ্বযাত্রী পাঠানোর ক্ষেত্রে সংকট সৃষ্টি হতে পারে।

এ বিষয়ে গত বৃহস্পতিবার বিমান মন্ত্রণালয়ে আন্ত:মন্ত্রণালয়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠক শেষে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন জানিয়েছেন, শনিবার থেকে কোনও হজ¦ ফ্লাইট খালি যাবে না। বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, যেসব হজ¦ যাত্রীর ভিসা হয়ে যাবে, তাদের মোবাইল মেসেজের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। বাংলাদেশি হজ¦ যাত্রীদের দ্রুত ভিসা পাওয়ার জন্য সৌদী দূতাবাস কর্তৃপক্ষকে শুক্রবার কার্যক্রম চালু রাখার অনুরোধ করা হয়েছে। তিনি জানান, হজ¦ যাত্রীদের গ্রুপ নির্ধারণের লক্ষ্যে (প্রতি গ্রুপে ৫০ জন) আগামী ৪-৫ দিনের মধ্যে মোয়াল্লেম, এজেন্সিভিত্তিক হজ¦ যাত্রীর সংখ্যা ও বাড়ির ঠিকানা সংবলিত তালিকা হজ¦ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) ধর্ম মন্ত্রণালয়ে দাখিল করবে। ধর্ম মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এ তালিকা বিমান এবং সৌদিয়াকে প্রেরণ করবে। এ তালিকা অনুসারে টিকিট বিক্রি করা হবে।

সভায় আরো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, কোন তারিখে কোন এজেন্সীকে কতজন হজ্বযাত্রীর টিকেট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এবং প্রতিদিনের আপডেট বিমান ও সৌদিয়া তা আবশ্যিকভাবে বিজনেস অটোমেশনকে অবহিত করবে। বিমান হজ্বযাত্রী পরিবহনের জন্য অতিরিক্ত স্লট বরাদ্দের জন্য সৌদী কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করবে। বিমান কম যাত্রীর ফ্লাইটগুলো আগামীতে বেশি যাত্রী ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন বিমান ব্যবহার করবে। ধর্ম মন্ত্রণালয় রিপলেসমেন্টের বিষয়টি সহজীকরণ করবে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.