১০ টাকার জন্য মাকে খুন, ছেলের আমৃত্যু কারাদণ্ড

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মাদক কেনার জন্য ১০ টাকা না দেওয়ায় মাকে কুপিয়ে হত্যায় মো. জাফর (২৭) নামের এক যুবকের আমৃত্যু সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সোমবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ রহিবুল ইসলাম এ রায় দেন।

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) জসিম উদ্দিন বলেন, জাফর মাদকাসক্ত ছিলেন। ১০ টাকা না পেয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেন তিনি। আদালত তাকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন। রায়ের সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

জাফর রায়পুর উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের রাখালিয়া গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে। তিনি ঢাকায় সুইপারের চাকরি করতেন।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, চাকরি হারিয়ে জাফর এলাকায় ঘোরাফেরা করতেন। এতে স্থানীয় বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে মাদকের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। এর জন্য বন্ধুদের কাছ থেকে টাকা ধার নেন তিনি। পরে মা শেফালি বেগমের কাছ থেকে ওই টাকা নিয়ে বন্ধুদের পরিশোধ করতেন। ২০২০ সালের ২৮ আগস্ট সকালে মায়ের কাছে দাবি করা ১০ টাকা না পেয়ে বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ধারালো দা দিয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেন তিনি। তখন ঘরে অন্য কেউ ছিলেন না। ওইদিন রাতে জাফরকে আসামি করে তার বাবা হোসেন আলী রায়পুর থানায় মামলা করেন। একই বছরের ২৩ ডিসেম্বর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও রায়পুর থানার এসআই মোহাম্মদ সাফায়েত উল্যা আদালতে জাফরের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.