ভারতে বিমানবন্দরে বিদেশি যাত্রীদের করোনা পরীক্ষার নির্দেশ

ভারতে করোনাভাইরাসের ওমিক্রনের বিএফ ৭ সাবভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হওয়ার পর থেকে দেশটিতে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে।

ভারতের বিভিন্ন বিমানবন্দরে করোনার নমুনা সংগ্রহ শুরু হচ্ছে। বিশেষ করে আন্তর্জাতিক বিমানে যাত্রীদের ক্ষেত্রে এ পদক্ষেপ কঠোর করা হয়েছে। এদিকে চীন ছাড়াও জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে হু হু করে করোনার প্রকোপ বাড়ছে। ফলে ভারতের সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সতর্কতা অবলম্বন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি চীনে বেড়েই চলেছে করোনার সংক্রমণ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। তারই মাঝে কোনো রকমের ঝুঁকি না নিয়ে ভারতের বিমানবন্দরগুলোতে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের ঘিরে কড়া সতর্কতা অবলম্বন করছে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

ভারতের বিভিন্ন বিমানবন্দরে চলবে জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের কাজও। জানানো হয়েছে, ভারতে আপাতত ওমিক্রনের বিএফ ৭ সাবভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। চলছে নজরদারি।

কেন্দ্রীয় পরিবার কল্যাণ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তরফে কোভিড পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে একটি বৈঠক সদ্য আয়োজিত হয়। সেখানেই উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে এই ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে। এদিকে, দেশটিতে নতুন করে ত্রাস সঞ্চার করেছে ওমিক্রনের বিএফ ৭ সাবভ্যারিয়েন্ট। ভারতে আপাতত চারজনের দেহে এই সাবভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

কেন্দ্রীয় পরিবার কল্যাণ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের তরফে কোভিড পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে একটি বৈঠক সদ্য আয়োজিত হয়। সেখানেই উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে বিএফসেভেন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে। এদিকে, দেশে নতুন করে ত্রাস সঞ্চার করেছে ওমিক্রনের বিএফ সেভেন সাবভ্যারিয়েন্ট। দেশে আপাতত ৩ টি কেস এই সাবভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে পাওয়া গিয়েছে।

যদিও আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলে আপাতত কোনো নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি। এছাড়া বিদেশি যাত্রীদের ক্ষেত্রেও কোনো রকমের নতুন বিধি কার্যকরী করা হয়নি। তবে পরিস্থিতির দিকে নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.