শেখ হাসিনা ফের আওয়ামী লীগের সভাপতি

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে শেখ হাসিনাকে সভাপতি নির্বাচিত করেন আওয়ামী লীগের সারাদেশের প্রতিনিধিরা।

নির্বাচন কমিশনার ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন সভাপতি পদে প্রস্তাবনা আহ্বান করেন। তখন কাউন্সিলররা শেখ হাসিনার নাম সমস্বরে বলেন। পরে মঞ্চে উঠে আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা আমির হোসেন আমু সভাপতি হিসেবে শেখ হাসিনার নাম প্রস্তাব করেন। দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান এ প্রস্তাবে সমর্থন জানান। পরে কমিশন এ প্রস্তাব ভোটে দেন। বিকল্প কোনো প্রস্তাব না থাকায় শেখ হাসিনা সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন।

এরপর নির্বাচন কমিশনার ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে মঞ্চে আসতে আহ্বান জানান। তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে মঞ্চে গিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে ফের দায়িত্ব বুঝে নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে সভাপতি হিসেবে ‘অবিকল্প’ মনে করেন দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা। ফলে নেতাকর্মীদের আস্থা ও ভালোবাসায় দশম বারের মতো আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পেলেন তিনি।

 

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হওয়া প্রথম অধিবেশন শেষ হয় দুপুর সোয়া ১টায়। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের মধ্য দিয়ে প্রথম অধিবেশন শেষ হয়।

এরপর প্রধানমন্ত্রীর সঞ্চালনায় বিকেল ৩টায় সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়। এ সময় কাউন্সিলরদের বক্তব্যের জন্য মঞ্চ উন্মুক্ত করে দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। একেক বিভাগ থেকে কাউন্সিলররা বক্তব্য দেবেন। এরপরও কোনো কাউন্সিলর বাদ থাকলে বর্ধিত সভার আয়োজন করা হবে। সেখানে তিনি তার বক্তব্য উপস্থাপন করবেন।

প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ। এ দলের হাত ধরেই স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র বাংলাদেশের সৃষ্টি। দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় ক্ষমতার মসনদেও দলটি। এ দেশের সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাও আওয়ামী লীগের হাত ধরে। টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা দলটির চোখ এখন আগামী জাতীয় নির্বাচনে। তার ঠিক এক বছর আগে ২২তম জাতীয় সম্মেলন করছে দলটি।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.