‘আমাদের যাত্রা কেউ বন্ধ করতে পারবে না’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, সবসময় বুক ফুলিয়ে বলি, দেশের মূল জনসংখ্যার ৬৫ শতাংশ ইয়ং জেনারেশন, যারা নাকি কর্মক্ষম। কাজেই আমাদের যাত্রা কেউ বন্ধ করতে পারবে না। আমরা টার্গেট মতোই যাব।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত টেক্সটাইল সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং শীর্ষক কনফারেন্সে তিনি এসব কথা বলেন।

আসাদুজ্জামান খান বলেন, আমরা ২০৪১ সালে সমৃদ্ধ ও উন্নত বাংলাদেশ হবো। এজন্য টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, আমরা চমৎকারভাবে এগিয়েছি। ২০২১-২০২২ অর্থবছরে তৈরি পোশাক রপ্তানিতে দেশের আয় প্রায় ৪২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তর পোশাক রপ্তানিকারক দেশ হয়ে দাঁড়িয়েছি। অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। এই মেরুদণ্ড বাঁচাতে হলে প্রয়োজন শিক্ষিত জনবল, যারা চিন্তা করতে জানে। কর্মক্ষেত্রে ঘটে যাওয়া সমস্যার সমাধান তারা জানবে। আমাদের টেক্সটাইল ও গার্মেন্টস শিল্প সময়ের সঙ্গে খাপ খাইয়ে চলছে।

মন্ত্রী বলেন, আগে আমাদের বিভিন্ন দেশ থেকে এক্সপার্ট নিয়ে আসতে হতো। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত, শ্রীলঙ্কা ও অন্যান্য দেশ থেকে আমরা এক্সপার্ট নিয়ে আসতাম। আমরা এখন এই খাতে কাজ করতে পারছি। আমাদের ইয়ং জেনারেশন এগিয়ে আসছে।

তিনি বলেন, দেশের সব জায়গায় টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়াররা অত্যন্ত দক্ষতা ও মেধা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। সেজন্যই আমরা পোশাক রপ্তানিতে দ্বিতীয় স্থানে চলে এসেছি। আমরা খুব শিগগিরই চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের মুখোমুখি হতে যাচ্ছি। সেখানে আমরা কোন জায়গা দিয়ে এগিয়ে যাব, এটা নির্ভর করে আমাদের এই প্রজন্মের ওপর। আমাদের এই প্রজন্ম ২০৪১ সালে বাংলাদেশকে স্বপ্নের জায়গায় নিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিভিশনের প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমানসহ আরও অনেকে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.