পাচার হওয়া ৪২ বাংলাদেশি শিশুকে ফেরত পাঠাল ভারত

অবৈধ পথে ভারতে পাচার হওয়া ৪২টি বাংলাদেশী শিশুকে স্বদেশ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ফেরত পাঠিয়েছে ভারত সরকার।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের হস্তান্তর করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নারায়ণ চন্দ্র পাল, চেকপোস্ট আইসিপি বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার মাহবুবুর রহমান ও পেট্রাপোল বিএসএফ সদস্যরা।

চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বিশ্বাস জানান, ওই শিশুরা ভারতে অনুপ্রবেশসহ বিভিন্ন অপরাধে আটক হয়। পরে বিভিন্ন মেয়াদে সাজাভোগ শেষে কিশোলয়, নবযাত্রা ও ধ্রুবাশ্রমসহ পশ্চিমবঙ্গের ১২টি শেল্টার হোমের হেফাজতে ছিল তারা। দুই দেশের যৌথ প্রচেষ্টায় তাদের দেশে ফেরানোর ব্যবস্থা করা হয়।

ভুক্তভোগী এক শিশু জানায়, ভালো কাজের প্রলোভনে পড়ে দালালদের মাধ্যমে তারা ভারতে গিয়েছিল। ভারতে গিয়ে বাসাবাড়ি বা কারখানায় কাজ করার সময় পুলিশের হাতে আটক হয় তারা। পরে আদালত তাদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়। সাজা শেষে কলকাতার বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন তাদের শেল্টার হোমের হেফাজতে নেয়। গতকাল ভারত সরকারের বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তাদের ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, আনুষ্ঠানিকতা শেষে বেসরকারি মানবাধিকার সংস্থা রাইটস যশোরের কাছে ৩২টি ও মহিলা আইনজীবী সমিতির কাছে ১০টি শিশুকে হস্তান্তর করা হবে।

রাইটস যশোরের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার তৌফিক হোসেন বলেন, ‘ফেরত আসাদের রাইটস যশোর ও মহিলা আইনজীবী সমিতি থানা ওই শিশুদের গ্রহণ করেছে। যশোরে তাদের নিজস্ব শেল্টার হোমে নিয়ে রাখা হবে। পরে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.