আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি ৬৯ এমপি

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ২৯৮ আসনে দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ। এ তালিকায় দেখা যাচ্ছে, বর্তমান সরকারের ৬৯ জন সংসদ সদস্য এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি। তবে তারা আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন বলে জানা গেছে।

আজ রোববার (২৬ নভেম্বর) বেলা ৪টার দিকে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ২৯৮ আসনের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ সময় নারায়ণগঞ্জ-৫ ও কুষ্টিয়া-২ আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেননি তিনি।

২০১৮ সালে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের মধ্যে যারা বাদ পড়েছেন তাদের মধ্যে আছেন সাবেক এলজিআরডি মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন (ফরিদপুর-৩), সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান (জামালপুর-৪), শ্রম প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান ( খুলনা-৩), সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ (ময়মনসিংহ-৫), প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ( কুড়িগ্রাম-৪), সাবেক পুলিশ প্রধান নুর মোহাম্মদ (কিশোরগঞ্জ-২), এনামুল হক (রাজশাহী-৪), হাজী মোহাম্মদ সেলিম (ঢাকা-৭), সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর (চাঁদপুর-১) ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন ( চট্টগ্রাম-১)।

আরো বাদ পড়েছেন মো. মজাহারুল হক প্রধান ( পঞ্চগড়-১), আলহাজ্ব মো. দবিরুল ইসলাম (ঠাকুরগাঁও-২), এইচ এন আশিকুর রহমান (রংপুর-৫), এম এ মতিন (কুড়িগ্রাম-৩), মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী (গাইবান্ধা-৪), মো. হাবিবর রহমান (বগুড়া-৫), মো. ছলিম উদ্দীন তরফদার, (নওগাঁ-৩) মুহা. ইমাজ উদ্দিন প্রাং (নওগাঁ-৪), মো. আয়েন উদ্দিন(রাজশাহী-৩), এনামুল হক (রাজশাহী-৪), মো. মনসুর রহমান (রাজশাহী-৫), মো. হাবিবে মিল্লাত(সিরাজগঞ্জ-২), তানভীর ইমাম (সিরাজগঞ্জ-৪), মেরিনা জাহান (সিরাজগঞ্জ-৬), মো. নুরুজ্জামান বিশ্বাস (পাবনা-৪), মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান (মেহেরপুর-২), মো. শফিকুল আজম খাঁন (ঝিনাইদহ-৩), মো. নাসির উদ্দিন (যশোর-২), রনজিত কুমার রায় (যশোর-৪), মো. সাইফুজ্জামান (মাগুরা-১), মো. আমিরুল আলম মিলন(বাগেরহাট-৪), পঞ্চানন বিশ্বাস(খুলনা-১), মো. আক্তারুজ্জামান (খুলনা-৬) মীর মোস্তাক আহমেদ রবি(সাতক্ষীরা-২), এস এম (জগলুল হায়দার (সাতক্ষীরা-৪), শওকত হাচানুর রহমান (রিমন) ( বরগুনা-২), মো. শাহে আলম (বরিশাল-২), গোলাম কিবরিয়া টিপু (বরিশাল-৩) পংকজ নাথ (বরিশাল-৪), নাসরিন জাহান রতনা (বরিশাল-৬), আতাউর রহমান খান (টাংগাইল-৩), মোহাম্মদ হাছান ইমাম খাঁন (টাংগাইল-৪), মো. ছানোয়ার হোসেন (টাংগাইল-৫), মো. জোয়াহেরুল ইসলাম (টাংগাইল-৮), আবুল কালাম আজাদ (জামালপুর-১)।

এছাড়া মো. মোজাফফর হোসেন(জামালপুর-৫), এ কে এম ফজলুল হক (শেরপুর-৩), নাজিম উদ্দিন আহমেদ (ময়মনসিংহ-৩), আনোয়ারুল আবেদীন খান (ময়মনসিংহ-৯), মানু মুজুমদার (নেত্রকোনা-১), ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল (নেত্রকোনা-৫), নূর মোহাম্মদ (কিশোরগঞ্জ-২), এএম. নাঈমুর রহমান ( মানিকগঞ্জ-১), কাজী মনিরুল ইসলাম (ঢাকা-৫), হাজী সেলিম (ঢাকা-৭), মো. শফিউল ইসলাম (ঢাকা-১০), এ. কে. এম. রহমতুল্লাহ (ঢাকা-১১), মো. সাদেক খান (ঢাকা-১৩), আগাখান মিন্টু (ঢাকা-১৪), মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন (গাজীপুর-৩), জহিরুল হক ভূঞা মোহন (নরসিংদী-৩), মনজুর হোসেন (ফরিদপুর-১), খন্দকার মোশাররফ হোসেন (ফরিদপুর-৩), মোয়াজ্জেম হোসেন রতন (সুনামগঞ্জ-১), জয়া সেন গুপ্তা (সুনামগঞ্জ-২), হাফিজ আহমদ মজুমদার (সিলেট-৫), নেছার আহমদ (মৌলভীবাজার-৩), গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ (হবিগঞ্জ-১), মো. আব্দুল মজিদ খান (হবিগঞ্জ-২), মোহাম্মদ এবাদুল করিম (ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া-৫), মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়া (কুমিল্লা-১), নাছিমুল আলম চৌধুরী (কুমিল্লা-৮), মো. নুরুল আমিন (চাঁদপুর-২), আয়েশা ফেরদাউস (নোয়াখালী-৬), চট্টগ্রাম-৪ দিদারুল আলম, সামশুল হক চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১২), জাফর আলম ( কক্সবাজার-১) এবারের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.