নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ৩০টি রাজনৈতিক দল

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে তফসিল অনুযায়ী ৩০০ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোট ২ হাজার ৭৪১ জন প্রার্থী। নির্বাচনে ৩০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল প্রার্থী দিয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গতকাল রাতে ইসির জনসংযোগ পরিচালক মো. শরিফুল আলম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

ইসিতে নিবন্ধিত দলের সংখ্যা ৪৪। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেই সময়কার ৩৯টি নিবন্ধিত দলই ভোটে অংশ নিয়েছিল। এবার বিএনপিসহ সমমনা দলগুলো কোনো প্রার্থী দেয়নি।

নির্বাচন কমিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ৩০০টি সংসদীয় আসনের জন্য আজ ৩০ নভেম্বর (গতকাল) মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন পর্যন্ত ২ হাজার ৭৪১ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মোট দাখিলকৃত মনোনয়নপত্রে ৩০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করেছে।’

ভোটের ৫২ দিন আগে অর্থাৎ গত ১৫ নভেম্বর দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমার শেষ তারিখ ছিল গতকাল। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে আজ থেকে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ১৮ ডিসেম্বর। ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ভোটের প্রচার চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। আর ভোট অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৭ জানুয়ারি।

মনোনয়নপত্র দাখিলসংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে ফেনী-৩ আসনে সর্বোচ্চ ৪০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরপর বগুড়া-৭ আসনে ২৫ জন ও ঢাকা-৫ আসনে ২১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এছাড়া ১২টি আসনে সর্বনিম্ন চারটি করে মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে বলে জানিয়েছে ইসি।

কোন কোন দল নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে সে বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বিস্তারিত জানায়নি নির্বাচন কমিশন। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির পাশাপাশি আসন্ন নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে জাকের পার্টি, তৃণমূল বিএনপি, বাংলাদেশ কংগ্রেস, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম), সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোট ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট। অংশ নিচ্ছে বীর প্রতীক মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট যুক্তফ্রন্ট। এ জোটে নিবন্ধিত দলগুলোর মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল) ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (মতিন)। এছাড়া জাতীয় পার্টি (জেপি), গণতন্ত্রী পার্টি, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, গণফ্রন্ট, ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ), বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে।

এর আগে গতকাল দুপুরে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ইসির মুখপাত্র ও সচিব মো. জাহাংগীর আলম জানিয়েছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিলের সময়সীমা বর্ধিতকরণের আর কোনো সুযোগ নেই। প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তবে কয়টি দলের কোন কোন আসনে মোট কতজন প্রার্থী অংশগ্রহণ করছেন তা আজ জানানো হবে বলেও জানান তিনি।

বিএনপি ও সমমনা দলগুলো দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে তফসিল পুনর্বিবেচনা ও সময় বাড়ানোর আলোচনা চলছিল কয়েক দিন ধরে। বিধি অনুযায়ী বিএনপিসহ অন্য দলগুলোর আসার আর সুযোগ থাকল না। এখন পর্যন্ত কমিশনের সিদ্ধান্ত পুনঃতফসিল হচ্ছে না। সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন ইসি সচিব।

তিনি বলেন, ‘সময়সীমা অতিক্রম হয়েছে বিধায় এটি বাড়ানোর আর কোনো সুযোগ নেই। বৃহস্পতিবার (গতকাল) বিকাল ৪টায় সময় শেষ হয়েছে। নির্বাচন কমিশন মনে করে, এ সময়সীমা বাড়ানোর আর কোনো সুযোগ নেই।’

এর আগে এদিন বেলা ৩টায় সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল অন্য নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। এছাড়া জনপ্রশাসন সচিব, জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব ও পুলিশের আইজিপিও এদিন সিইসির সঙ্গে বৈঠক করেন।

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও নির্বাচনের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে ইসি সচিব বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব সাক্ষাৎ করেছিলেন। বিশেষ করে আইজিপি (পুলিশ মহাপরিদর্শক) সামগ্রিক বিষয় অবহিত করেছেন। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানিয়েছেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কোনো নির্দেশনা রয়েছে কিনা, তা জেনে নিয়েছেন। পরবর্তী সময়ে সে অনুযায়ী কার্যক্রম গ্রহণ করবেন।’

এদিকে মন্ত্রী-সংসদ সদস্যসহ বেশ কয়েকজন প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। নির্বাচন কমিশন সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় চার মন্ত্রী ও ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানসহ ২১ জন প্রার্থীকে শোকজ করেছে ইসি। আজকের মধ্যে তাদের শোকজের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.