গাজায় স্কুলে আবারও ইসরায়েলি হামলা, নিহত অন্তত ২৫

হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। গাজার দক্ষিণের ওই স্কুলটিতে  স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অনকে। বাস্তুহীনদের আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল স্কুলটি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, খান ইউনিসের মাআন স্কুলের ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে নিহত এবং আহতদের  উদ্ধার করে শহরের নাসের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

খান ইউনিস হচ্ছে গাজার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। বেশ কয়েকদিন ধরে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এই শহরটিতে লক্ষ্য করে তীব্র হামলা চালিয়ে আসছে।

মোহাম্মদ সালো নামের এক ব্যক্তি যার বোন মঙ্গলবারের হামলায় নিহত হয়েছে তিনি বলেন, আমার চাচাতো ভাই আমাকে ফোন করে আমাকে আসতে বলেছিল কারণ আমার বোনের মরদেহ স্কুলের উঠানে পড়ে ছিল এবং আমরা তা উদ্ধার করতে পারিনি প্রথমে। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাই। তিনি বলেন শুধু স্কুল না, স্কুলের আশেপাশের এলাকাও হামরার লক্ষ্যবস্তু ছিল।

এদিকে মঙ্গলবার খান ইউনিস এবং নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর হামলায় আরও ৫০ জন নিহত হয়েছেন। সোমবার গাজার উত্তরের দু’টি স্কুলে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল, যেখানে অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছেন।

হামলার শুরু থেকে অনেক ফিলিস্তিনি আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে স্কুল বা হাসপাতালে আশ্রয় নিয়েছিল। কিন্তু ইসরায়েলি হামলার হাত থেকে কোনও কিছুই রেহাই পায়নি। ইসরায়েল বরাবর দাবি করে আসছে, হামাস বেসামরিকদের মানব ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।

দু মাস ধরে চলা হামলায় গাজায় মৃত্যুর সংখ্যা এরই মধ্যে ১৬ হাজার ছাড়িয়েছে। অন্যদিকে হামাসের হামলায় ১২শ’ ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.