বিমান হামলায় বেশ কয়েকজন ইসরায়েলি জিম্মির মৃত্যু

ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের সামরিক শাখা আল-কাসেম ব্রিগেডস জানিয়েছে, দখলদার ইসরায়েলি সেনাদের চালানো বিমান হামলায় বেশ কয়েকজন ইসরায়েলি জিম্মি ‘নিহত ও আহত’ হয়েছেন।

গত শুক্রবার প্রকাশিত বিবৃতিতে গোষ্ঠীটি দাবি করেছে, গাজার উত্তরাঞ্চলের ‘গাজা সিটির বিভিন্ন জায়গায় দখলদারদের বর্বর হামলায়’ জিম্মিরা আহত ও নিহত হয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানায়নি তারা।

ইসরায়েলের পক্ষ থেকেও জিম্মিদের ওপর বিমান হামলা চালানোর ব্যাপারে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি।

আল-কাসেম বিগ্রেডস আরও জানিয়েছে, ‘বেসামরিকদের ওপর গণহত্যা চালানোয়’ ইসরায়েলের তেল আবিবে মুহুর্মুহু রকেট হামলা চালানো হয়েছে।’

ইসরায়েলের সেনাবাহিনীও শুক্রবার এক বিবৃতিতে জানায়, তেল আবিব ও মধ্যাঞ্চল লক্ষ্য করে শক্তিশালী রকেট হামলা চালানো হয়েছে। ওই সময় সাধারণ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাওয়ার জন্য সতর্কতামূলক সাইরেন বাজানো হয়।

এরআগে হামাস শুক্রবার দাবি করেছিল, তারা ইসরায়েলের ৯টি সামরিক যান ধ্বংস করেছে। এরমধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের খান ইউনিসে ১০৫ ট্যাংক বিধ্বংসী অস্ত্র ব্যবহার করে তিনটি যানে হামলা চালানো হয়। আর বাকি ছয়টি ধ্বংস করা হয় উত্তরাঞ্চলের গাজা সিটির শেখ রেদওয়ান এবং জাইতুন এলাকায়।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের বিভিন্ন অবৈধ বসতি লক্ষ্য করে হামলা চালায় হামাস। ওইদিন প্রায় ২৪০ জনকে ধরে গাজায় নিয়ে আসে তারা। এই ২৪০ জিম্মির মধ্যে ৯২ নারী ও শিশুকে ছেড়ে দিয়েছে হামাস। বাকিরা এখনো তাদের জিম্মায় রয়েছে।

সূত্র: আল জাজিরা

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.