খিলক্ষেতে দুর্ঘটনা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগ

রাজধানীর খিলক্ষেতে একটি গাড়ির ধাক্কায় তিন জন পথচারী মৃত্যুর ঘটনায় গাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ খতিয়ে দেখছে পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবী, ঘটনার সময় গাড়ির মালিক সাইফুল্লাহ মোস্তফা মুন্না তার অফিসে অবস্থান করছিলেন। সিসি টিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করে পুলিশও বলছে একই কথা। তবে চালকের আসনে কে ছিলেন সে তথ্য নিয়ে গণমাধ্যমে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে বলেও দাবি করেছে পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২৭ ডিসেম্বর বিমানবন্দর এলাকা থেকে আসা একটি সাদা ল্যান্ড ক্রুজার প্রাডো গাড়ির ধাক্কায় ৩ জন পথচারী নিহত হন। ঘটনাস্থল থেকে গাড়িটি জব্দ করে খিলক্ষেত থানা পুলিশ। পরের দিন এক নিহতের আত্মীয় থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে মামলা করেন। পরে পুলিশ গাড়ির মালিককে শনাক্ত করে গাড়ির চালক নাবিল আল বিশালকে আটক করে। পরে রিমান্ডে নাবিল জবানবন্দীমূলক স্বীকারোক্তি দেন।

এদিকে ঘটনার পর একটি মহল উদ্দেশ্যমূলকভাবে অভিযোগ তোলে গাড়ির মালিক সাইফুল্লাহ মোস্তফা মুন্না সেদিন চালকের আসনে ছিলেন। গণমাধ্যমে এই নিয়ে সংবাদও প্রকাশ করা হয়।

তবে প্রত্যক্ষদর্শী মুন্নার অফিসের দারোয়ান বলেন, স্যার গাড়িতে বাসায় এসেছেন ওইদিন রাতে। এরপর আমি গেট খুলে দিলে তিনি উপরে চলে যান। এর ১৫/২০ মিনিট পরেই স্যার দৌড়ে নামেন। নামার সময় শুধু এটুকু বললেন যেন, একটা দুর্ঘটনা ঘটেছে।

তার অফিসের স্টাফরা বলেছেন, মুন্না ঘটনার সময় অফিসে মিটিং করেছিলেন। এ সময় তার ফোনে গাড়ি দুর্ঘটনার খবর আসলে তাড়াহুড়া করে মিটিং থেকে বের হয়ে যান। অফিসের ১২টি সিসি ক্যামেরা ছিল। সেখানেই সব রেকর্ড আছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। এসব সিসি ক্যামেরার ফুটেজ থানার সংগ্রহেও রয়েছে।

দুর্ঘটনার সময়ের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, দুর্ঘটনার কবলে পরা গাড়িটি ঘটনার দিন রাত ৮টা ৩৮ মিনিটে মুন্নাকে তার অফিসে নামিয়ে দিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পরেই মুন্নার ফোনে দুর্ঘটনার খবর আসে। মুন্নাকে ওই সময় তড়িঘড়ি করে অফিস থেকে বের হয়ে যেতেও দেখা যায় ফুটেজে।

খিলক্ষেত থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ আমিনুল বাশার বলেন, প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে দুর্ঘটনার সময় মুন্না চালকের আসনে ছিলেন না। আমরা বেশ কিছু সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পেয়েছি, যেখানে স্পষ্টভাবে দেখা যাচ্ছে যে গাড়িটি দুর্ঘটনার কবলে পরার আগে গাড়ির মালিক মুন্নাকে তার অফিসের সামনে নামিয়ে দিয়ে গেছে। কোনো ভুল তথ্যে বিভ্রান্ত না হতে আহবান জানিয়েছেন তিনি।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.