ভয়াবহ পরিস্থিতি, মাঝ আকাশে বিমানে আগুন!

যুক্তরাষ্ট্রে উড়ন্ত বিমানে ভয়াবহ আগুনের ঘটনা ঘটেছে। অ্যাটলাস এয়ারের বোয়িং ৭৪৭-৮ মডেলের একটি কার্গো বিমানের ইঞ্জিনে মাঝ আকাশে হঠাৎ আগুন ধরে যায়। তবে জরুরি অবতরণের কারণে ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেছেন ওঅই বিমানে থাকা সব আরোহীরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে প্রকাশিত এক ভিডিওতে। রয়টার্সের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাটলাস এয়ারের বোয়িং ৭৪৭–৮ কার্গো বিমানটি মায়ামি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ইঞ্জিনে আগুন লেগে যায়। উড়তে থাকা ওই বিমান থেকে বের হতে থাকে আগুনের লেলিহান শিখা।

অ্যাটলাস এয়ার এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিমান উড্ডয়নের পর পরই ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। এ কারণে আগুন লাগতে পারে। তবে পাইলটের বুদ্ধিতে দ্রুত বিমানটি মায়ামি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করা হয়। এতে কারও তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি।

তবে বৃহস্পতিবারের এ ঘটনার এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সিভিল এভিয়েশন বিভাগ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে যেসব ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে, সেগুলো এই উড়োজাহাজের কিনা–তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
বোয়িং ৭৪৭–৮ কার্গো বিমানটিতে জেনারেল ইলেকট্রিক কোম্পানির ইঞ্জিন থাকে। এ ব্যাপারে বোয়িং, এফএএ ও জেনারেল ইলেকট্রিক কোম্পানি কোনো মন্তব্য করেনি।

উদ্ধারকারী দল দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভায় ও সবাইকে উদ্ধার করে। তবে ওই উড়োজাহাজে মোট কতজন আরোহী ছিলেন তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। সম্প্রতি বোয়িংয়ের একটি বিমানে মাঝ আকাশে দরজা খুলে যাওয়ার ঘটনায় এর নিরাপত্তা নিয়ে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছে মার্কিন বিমান উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান বোয়িং। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার মাঝ আকাশে বিমানের ইঞ্জিনে আগুনের ঘটনা ঘটল।

 

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.