ডিভোর্স দিয়ে স্ত্রীর বান্ধবী পরকীয়া প্রেমিকাকে বিয়ে

বলিউডের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হিমেশ রেশমিয়া। তারকা হিসেবে খ্যাতি পেলেও বিবাহিত জীবন বেশ বর্ণময় এই গায়কের। কারণ স্ত্রীর বান্ধবীর সঙ্গে দীর্ঘদিনের পরকীয়া সম্পর্ক ছিল তার।

টিভি নাইন বাংলার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯৯৭ সালে প্রথম স্ত্রী কোমলকে বিয়ে করেন হিমেশ। সে সময় গায়ক হিসেবে খ্যাতি ছিল না তার। সময়ের সাথে সাথে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন বলিউডে।

এরপর ২০০৬ সালে কোমলের বান্ধবী সোনিয়া কাপুরের সঙ্গে আলাপ হয় এই তারকার। সেই আলাপের পরেই গোপন সম্পর্কে জড়ান দুজন। দীর্ঘদিন স্ত্রীকে আড়াল করে পরকীয়া সম্পর্কে থাকেন গায়ক।

দূরদর্শনের পর্দায় ‘শ্রীকৃষ্ণ’ ধারাবাহিকে সুভদ্রার চরিত্রে অভিনয় করে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেন সোনিয়া। তার অনুরাগী সংখ্যাও কম ছিল না। এমন সময়েই বান্ধবীর স্বামী হিমেশের সঙ্গে আলাপ হয় এই তারকার। বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে দু’জনের মাঝে। সেখান থেকেই রূপ নেয় ‘বিশেষ সম্পর্ক’।

আড়ালে নিজেরই বান্ধবীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন স্বামী, সেটা টেরই পাননি হিমেশের স্ত্রী কোমল। শোনা যায়, ২০০৬ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত নাকি সোনিয়ার সঙ্গে গোপনে ‘সম্পর্ক’ বজায় রেখেছিলেন এই গায়ক।

দীর্ঘ ১১ বছরেও সেই সম্পর্কের কথা জানতে পারেননি কোমল। যার কারণে কোনোদিন সন্দেহও করেননি স্বামীকে। কিন্তু ২০১৭ সালে গিয়ে সোনিয়ার সঙ্গে হিমেশের পরকীয়ার কথা জানতে পারেন তার স্ত্রী। এরপরই স্বামীর কাছে ডিভোর্স চান তিনি।

বান্ধবীর সঙ্গে স্বামীর পরকীয়া কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেননি কোমল। এই ঘটনায় বেশ আঘাত পান তিনি। হিমেশও কোনো কিছু অস্বীকার করেননি। সোনিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের কথা স্বীকার করে ডিভোর্স দেন কোমলকে।

প্রায় ২০ বছরের সংসার ভাঙনের পর ২০১৮ সালে সোনিয়ার গলায় মালা দেন এই গায়ক। দীর্ঘদিনের ‘গোপন’ সম্পর্ককে স্বীকৃতি দেন এই দুই তারকা। বর্তমানে সোনিয়াকে নিয়েই সংসার করছেন হিমেশ রেশমিয়া।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.