পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযান, ৩ আনসার সদস্য প্রত্যাহার

আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট অফিসে দালালদের দৌরাত্ম্য ও গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ খতিয়ে দেখতে গ্রাহক সেজে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অভিযানকালে এনফোর্সমেন্ট টিম মুজিবর রহমান নামে একজন দালালকে হাতেনাতে আটক করে। একইসঙ্গে দালালদের সঙ্গে সম্পৃক্ততা থাকা ও ঘুষ লেনদেনের প্রমাণ পাওয়ায় তিন আনসার সদস্যকে সাময়িক প্রত্যাহার করা হয়েছে। বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীকে জানাবে পাসপোর্ট অধিদপ্তর।

তিন আনসার সদস্য হলেন— শামীম, আজিজুর রহমান ও নূর আলম।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) দুদকের ঢাকা প্রধান কার্যালয় থেকে সহকারী পরিচালক আফনান জান্নাত কেয়া, আবুল কালাম আজাদ, সুভাষ চন্দ্র মজুমদার ও রুহুল হকের সমন্বয়ে একটি এনফোর্সমেন্ট টিম এ অভিযানে অংশ নেয়।

দুদকের উপপরিচালক (জনসংযোগ) মো. আকতারুল ইসলাম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

দুদক জানায়, আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসে দালালদের দৌরাত্ম্য ও গ্রাহক হয়রানির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দুদক অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় এনফোর্সমেন্ট টিম ছদ্মবেশে সেবা নিতে গেলে দালালদের দৌরাত্ম্য দেখতে পায় এবং দালালদের সঙ্গে আনসার সদস্যদের যোগসাজশ পায়। টিম একজন দালালকে হাতেনাতে ধরে পরিচালক বরাবর নিয়ে যায়। তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে বলে জানা যায়।

দুদক আরও জানা যায়, প্রথমে ছদ্মবেশ ধারণ করে ৩ জন আনসার সদস্য ও একজন দালালকে অতিরিক্ত টাকা গ্রহণের তথ্য পাওয়া যায়। এ বিষয়ে বিভাগীয় পরিচালক আবদুল আল মামুনকে অবহিত করা হয়। দালালদের যোগসাজশের অপরাধে তিনজন আনসার সদস্যকে তাৎক্ষনিক চাকরি থেকে প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেন। সর্বশেষ অভিযোগের বিষয়ে বিস্তারিত রেকর্ডপত্র সরবরাহ করা হয়। এনফোর্সমেন্ট টিম দ্রুত কমিশন বরাবর এ বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট প্রদান করবে বলে জানা গেছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.