জিবুতি উপকূলে নৌকাডুবিতে মৃত্যু ৩৩

লোহিত সাগরের জিবুতির উপকূলে নৌকাডুবিতে শিশুসহ অন্তত ৩৩ জন অভিবাসীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

ইয়েমেন থেকে ইথিওপিয়ায় লোহিত সাগর পাড়ি দিয়ে যাওয়া ৭৭ জনের মধ্যে এই নিহত অভিবাসীরা ছিলেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা।

নিহত অভিবাসীদের সবাই ইথিওপিয়ান। এদের মধ্যে আট বছর বয়সী এক বালক শিশুও রয়েছে। আজ বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার মৎস্যজীবীরা কয়েকজন অভিবাসীকে ডুবে যেতে দেখে উপকূলরক্ষীদের এ বিষয়ে সতর্ক করেন। পরে উদ্ধারকারীরা ২০ জনেরও বেশি মানুষকে বাঁচাতে সক্ষম হন এবং অন্যরা নিখোঁজ রয়েছেন।

উদ্ধার করে জীবিতদের জিবুতির উপকূলে গডোরিয়া শহরে নিয়ে আসা হয়, তখন তাদের মধ্যে ভয় এবং আতঙ্ক স্পষ্ট ছিল। সেখানে চিকিৎসার জন্য তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরবর্তীতে জাতিসংঘের অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা আইওএম তাদের ইথিওপিয়ায় প্রত্যাবাসন করে।

জিবুতি কোস্টগার্ডের সিনিয়র কর্মকর্তা ইস ইইয়াহ বলেন, ডুবে যাওয়া নৌকায় থাকা অভিবাসীরা ইয়েমেন ছেড়ে চলে যেতে চাচ্ছিলেন কারণ সেখানে তাদের জীবন বড় সংগ্রামের মধ্যে ছিল।

এদিকে এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে শোক প্রকাশ করেছেন জিবুতিতে নিযুক্ত ইথিওপিয়ার রাষ্ট্রদূত।

স্থলবেষ্টিত ইথিওপিয়ায় গৃহযুদ্ধের পর পালিয়ে আসা লোকেরা প্রায়শই জিবুতি এবং ইয়েমেনের মধ্য দিয়ে সৌদি আরব এবং তার বাইরেও অন্য অনেক দেশে ভালো সুযোগের সন্ধানে যেয়ে থাকেন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ আবার আটকে যায় ইয়েমেনে। আরব উপদ্বীপের এই দেশটিও যুদ্ধের কবলে রয়েছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.