থাইল্যান্ড-বাংলাদেশ ৫ দ্বিপক্ষীয় নথি সই

বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ডের মধ্যে পাঁচটি দ্বিপক্ষীয় নথি স্বাক্ষর হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ভিসা অব্যাহতি, জ্বালানি, পর্যটন, শুল্ক ও মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি। এর মধ্যে একটি চুক্তি, তিনটি সমঝোতা স্মারক ও একটি লেটার অব ইনটেন্ট (এলওআই)।

আজ শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) থাই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গভর্নমেন্ট হাউসে থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী স্রেথা থাভিসিন এবং সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে এসব দ্বিপক্ষীয় নথি সই হয়।

নথিগুলোর মধ্যে রয়েছে অফিসিয়াল পাসপোর্টধারীদের ভিসা ছাড়-সংক্রান্ত চুক্তি; জ্বালানি সহযোগিতা, শুল্ক বিষয়ে পারস্পরিক সহায়তা এবং পর্যটন ক্ষেত্রে সহযোগিতাবিষয়ক তিনটি সমঝোতা স্মারক। রয়েছে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) বিষয়ক একটি লেটার অব ইনটেন্ট (এলওআই)।

 

দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একান্ত বৈঠক এবং দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে দ্বিপক্ষীয় এসব নথি সই হয়।

এর আগে গভর্নমেন্ট হাউসে পৌঁছালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে থাই প্রধানমন্ত্রী স্রেথা থাভিসিন অভ্যর্থনা জানান। এরপর সেখানে তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে থাই সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকস দল গার্ড অব অনার দেয়। প্রধানমন্ত্রী গার্ড পরিদর্শন করেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.