পরাজিত ভারত, পরাজিত আইসিসি

iccবাংলাদেশকে লজ্জাজনভাবে বিদায় করলেও আইসিসিরি আশীর্বাদে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আর কুলিয়ে উঠতে পারলো না ভারত। তাদের সঙ্গে সঙ্গে যেনো পরাজয় ঘটলো আইসিসির।

বৃহস্পতিবার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ভারতকে ৯৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে ১১তম বিশ্বকাপের ফাইনালে প্রতিবেশী নিউজিল্যান্ডের সঙ্গী হলো চারবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।

ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিং নেমে ৩২৮ রান করে ক্লার্ক বাহিনী।

অস্ট্রেলিয় টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান স্টিভেন স্মিথের শতরান এবং অ্যারন ফিঞ্চের ৮১ রানের ওপর ভর করে টিম ইন্ডিয়াকে ৩২৯ রানের টার্গেট দেয় তারা। এ দু’জন মিলে রেকর্ড ১৮২ রানের জুটি গড়েন।

ভারতের হয়ে ৯ ওভারে ৭২ রান দিয়ে উমেশ যাদব সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট নেন। এছাড়া দুটি উইকেট পান ১০ ওভারে ৭৫ রান দেওয়া মোহিত শর্মা। বাকী একটি উইকেট নিয়েছেন অশ্বিন।

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ৩০০ রানের বেশি স্কোর এবারই প্রথম হয়েছে। তাও আবার গতবারের চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে।

৩২৯ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালই করেন দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও রোহিত শর্মা জুটি। উদ্বোধনী জুটিতে স্কোর বোর্ডে ৭৬ রান যোগ করে বিদায় নেন শিখর ধাওয়ান। ব্যক্তিগত ৪৫ রানে হেজেলউডের বলে ম্যাক্সওয়েলের হাতে ক্যাচ দেন তিনি।

এরপর ভারতের ব্যাটিংয়ের হাল ধরতে আসেন নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। কিন্তু তিনি তার নামের প্রতি সুবিচার না করে স্কোর বোর্ডে মাত্র ২ রান যোগ হওয়ার পর দর্শকদের প্রত্যাশার আগুনে পানি ঢেলে মাত্র ১ রানেই বিদায় নেন।

এরপর পুরো টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত খেলা রোহিত শর্মা ৩৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ফলে ১৮ ওভার শেষে দলীয় শতরান পূর্ণ করার আগেই তিন উইকেট খোয়ায় টিম ইন্ডিয়া।

রাহানে এবং রায়না মিলে স্কোর বোর্ডে ১৭ রান যোগ করতেই চতুর্থ উকেটের পতন। রায়না প্যাভিলিয়নের ফেরেন ব্যক্তিগত ৭ রানে।

এরপর দলীয় অধিনায়ক ধোনি এবং রাহানে মিলে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন।australia_w

দলীয় ১৭৮ রানের মাথায় ভারতের টপঅর্ডারের পঞ্চম ব্যাটসম্যানকে ফেরায় অজিরা। মিচেল স্টার্কের করা ৩৭তম ওভারের দ্বিতীয় বলে অজিঙ্কা রাহানে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরের পথ ধরেন।

আউট হওয়ার আগে রাহানে করেন ৬৮ বরে ৪৪ রান। দলীয় ১০৮ রানে চার ব্যাটসম্যান ফিরে গেলেও ধোনি এবং রাহানে মিলে আরও ৭০ রানের জুটি গড়েন।

এরপর নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে আসা রবিন্দ্র জাদেজা রান আউটের ফাঁদে পড়ে তার ১৬ রানের ইনিংসের ইতি টানেন। দলের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান জাদেজাকে রান আউট হতে দেখে ক্যাপ্টেন কুলের কপালের ভাজ পড়লেও শেষ পর্যন্ত ধোনিও একই পথে হাঁটলেন। ব্যক্তিগত ৬৪ রানে তিনি সাজঘরে ফেরেন।

৪৬তম ওভারে অশ্বিন এবং শর্মাকে পরপর ফিরিয়ে দিয়ে দলকে জয়ের কাউন্ট-ডাউন শুরু করিয়ে দেন। ৪৭তম ওভারের শেষ বলে জয়সূচক উইকেটটি তুলে নেন স্টার্ক। ফলে ২৩৩ রানে থেমে যায় ভারতীয়দের রানের চাকা।

অজিদের হয়ে জেমস ফকনার ৩টি, মিচেল জনসন ও স্টার্ক দুটি করে এবং হেজেলউড একটি উইকেট নেন।

অজি পেসারদের তোপের মুখে ভারতীয় ব্যাটিংয়ের স্তম্ভ ২৩৩ রানে থেমে যায়। ফলে টিম ইন্ডিয়াকে ৯৫ রানে হারিয়ে স্বপ্নের ফাইলের নৌকায় চড়েছে অস্ট্রেলিয়া।

রোববার (২৯ মার্চ) বিশ্বকাপের ফাইনালে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সহযোগী আয়োজক নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে আরেক সহযোগী অস্ট্রেলিয়া।

দুই স্বাগতিকের লড়াইয়ে শেষ হাসি কার মুখে ফোঁটে তা দেখার জন্য দর্শকদের অপেক্ষা করতে হবে ২৯ মার্চ পর্যন্ত।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.