যেসব পানীয় ঠান্ডাজনিত সমস্যা দূর করে

যেসব পানীয় ঠান্ডাজনিত সমস্যা দূর করে।

শীত এলে ঠান্ডাজনিত সমস্যায় ভোগেন না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ঠান্ডা লাগা, সর্দি-কাশি, গলা ব্যথা ইত্যাদির কারণে কাবু হয়ে পড়েন অনেকেই। আবহাওয়া পরিবর্তনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে সময় লাগে কিছুটা। আর সেই সুযোগেই বাসা বাঁধতে পারে এসব অসুখ। তাই বাড়াতে হবে সতর্কতা। এমনকিছু পানীয় রয়েছে যা পান করলে এই শীতেও থাকা যাবে ঠান্ডাজনিত সমস্যা থেকে দূরে।

গোল মরিচ শরীরের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ায়। গোল মরিচ অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টও। এটি গলা বসে যাওয়া, নাক বন্ধ ইত্যাদি সমস্যা থেকে আরাম যেমন দেয়, তেমনই ঠান্ডার সঙ্গে লড়াই করার ক্ষমতারও জোগান দেয়। শীতে চায়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন গোল মরিচ। প্রতিদিন মরিচ চা খেলে শীতে সুস্থ থাকবে শরীর। ভালো ফল পেতে এতে কিছুটা মধু মেশাতে পারেন।

দারুচিনি শুধু রান্নার স্বাদ বাড়াতেই ব্যবহার করা হয় এমন নয়, ঠান্ডার সমস্যা প্রতিরোধেও এটি দারুণ কার্যকরী। দারুচিনি প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের উৎসও এই দারুচিনি। গরম পানিতে কয়েক টুকরো দারুচিনি ফেলে তা ফুটিয়ে পান করুন প্রতি দিন। কফের সমস্যা হলে তা দূর করতে সাহায্য করবে এই পানীয়। সাইনাস ও মাইগ্রেনের সমস্যাও কমিয়ে আরাম দেয় এই পানীয়।

আদায় থাকা জিঞ্জারল, জিঞ্জারন প্রভৃতি উপাদান অ্যান্টিইনফ্লেমটরি ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। ঠান্ডা লাগা থেকে বাঁচতে আদা বেশ কার্যকরী। এক কাপ পানিতে আদা কুচি ফেলে তা ফুটিয়ে নিন। এতে যোগ করুন লেবুর রস ও মধু। লেবু ও মধু দুই-ই প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। নিয়ম করে খালি পেটে এই পানীয় খেলে শীতের অসুখের হাত থেকে তো বাঁচবেনই, এ ছাড়া শরীরে জমে থাকা টক্সিন দূর হবে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.