ভুতুড়ে বাড়িতে থাকতেন জেনিফার অ্যানিস্টন

ভুতুড়ে বাড়িতে থাকতেন জেনিফার অ্যানিস্টন।

গ্রামে ভুতুড়ে বাড়ি থাকলেও শহরে থাকাটা একটু অস্বাভাবিক। কিন্তু জেনিফার অ্যানিস্টন যে খবর দিলেন তাতে ভ্রু কুঁচকে যাওয়া স্বাভাবিক। খোদ লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি বাড়িতেই নাকি ভূতের দেখা পেয়েছিলেন এই হলিউড অভিনেত্রী।

একটি ভুতুড়ে বাড়িতে থাকতেন হলিউড অভিনেত্রী জেনিফার অ্যানিস্টন। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানালেন তিনি। এমনকি সেই বাড়িতে নানা ভৌতিক কাজ দেখারও অভিজ্ঞতা হয়েছে জেনিফারের। এটি জেনিফারের ক্যারিয়ারের প্রথম দিকের ঘটনা। তিনি তখন তাঁর এক বান্ধবীর সঙ্গে একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন। সেখানেই ভূত সব অদ্ভুত কাণ্ড করে বেড়াত। তিনি বলেন, ‘কখনো ঘরের মধ্যে দেখি ডিশওয়াশারটি চলতে শুরু করেছে কিংবা কফিমেকারটি হাঁটছে। অথবা কখনো কখনো সাউন্ড বক্সের ভলিউম হঠাৎ করেই জোরে বেজে উঠেছে। এসব ছিল খুবই ভয়ংকর অভিজ্ঞতা।’

‘দ্য লেট শো উইথ জেমস কর্ডন’ অনুষ্ঠানে উপস্থাপক জেমস কর্ডনকে এই কথা বলেন জেনিফার অ্যানিস্টন। সেখানে নেটফ্লিক্সের সিনেমা ডাম্পলিন–এর প্রচারের জন্য গিয়েছিলেন তিনি। জেনিফার বলেন, ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে যখন লস অ্যাঞ্জেলসে থাকা শুরু করেন, তখন এ ঘটনা ঘটে। এমনকি ভূত তাড়াতে তিনি ওঝাও ডেকে নিয়ে এসেছিলেন। জেনিফার আরও জানান, ভূত নাকি তাঁর বান্ধবীকে একদমই সহ্য করত না। যদিও তাঁর বান্ধবীকে এ কথা তিনি জানাননি। তাড়াতাড়ি তাঁরা বাড়িটি ছেড়ে দেন। কারণ এই অভিজ্ঞতা ছিল খুবই ভয়ংকর। ডাম্পলিন সিনেমাটি এখন দেখা যাচ্ছে নেটফ্লিক্সে। ফক্স এইট।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.