অহনার সড়ক দুর্ঘটনা মামলাঃ এবার ট্রাকের ড্রাইভার সুমনের স্বীকারোক্তি

অভিনেত্রী অহনা রহমানের সড়ক দুর্ঘটনা মামলায় গ্রেফতার ট্রাকের ড্রাইভার মোহাম্মদ সুমন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সুফিয়ান মো. নোমান আসামির জবানবন্দি রেকর্ড করেন। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উত্তরা পশ্চিম থানার এসআই হুমায়ন কবীর আসামিকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় আসামির ওই জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা শওকত আকবর এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আদালত সূত্র জানায়, ৯ জানুয়ারি রাতে পুরান ঢাকায় শুটিং শেষে অহনা ব্যক্তিগত গাড়ি চালিয়ে উত্তরার বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় অহনার সঙ্গে ছিলেন তার খালাতো বোন লিজা ইয়াসমীন মিতু। পুরান ঢাকা থেকে রাত সোয়া ৩টার দিকে উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরে লেকড্রাইভ রোডে এলে পাথরবোঝাই এক ট্রাক তাদের গাড়িকে ধাক্কা দেয়।

গাড়ি থেকে বের হয়ে অহনা ট্রাকচালককে নামতে বললে উল্টো চালক ইচ্ছে করে তাদের গাড়ির পেছনে আবারও জোরে ধাক্কা দেয়। এতে অহনা ট্রাকচালকের পাশের দরজায় উঠেন। আর চালক অহনাকে নিয়েই ট্রাক চালানো শুরু করেন।

অহনা ট্রাকের দরজা ধরে ঝুলতে থাকেন। আর তার বোন মিতু ট্রাকের পেছনে পেছনে দৌড়াতে থাকেন। ট্রাকটি ১২ নম্বর সেক্টরে জোরে বাঁক নেয়ার সময় উল্টে পড়ে যায়। অহনা ছিটকে পড়েন রাস্তার ওপর। পরে ট্রাক ফেলেই চালক ও সহকারী পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় অহনার খালাতো বোন লিজা ইয়াসমীন মিতু বাদী হয়ে মামলাটি করেন। এ মামলায় ট্রাকের ড্রাইভার সুমনকে শনিবার ভোরে আশুলিয়া থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এর আগে হেলপার মো. রোহান শুক্রবার আশুলিয়া থেকে গ্রেফতার হন। পরদিন আদালতে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। বর্তমানে তিনিও কারাগারে রয়েছেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.