সেন্সর বোর্ডের ওপর চটেছেন ইমরান

সেন্সর বোর্ডের ওপর চটেছেন ইমরান।

সময় অল্প থাকায় সেন্সর বোর্ডের আপত্তির মুখে পড়ে ‘চিট ইন্ডিয়া’ সিনেমার নাম পরিবর্তন করে ‘হোয়াই চিট ইন্ডিয়া’ করা হলো। অভিনেতা তথা প্রযোজক ইমরান হাসমি যদিও একে ‘অযৌক্তিক’ ও ‘রিডিকিউলাস’ বলে উল্লেখ করেছেন।

ইমরান হাসমি বলেন, ‘এক বছর ধরে ‘চিট ইন্ডিয়া’ নামটা রইলো, সবাই জানলেন, সিবিএফসি সব প্রোমোকে অনুমোদন দিলো। হঠাৎ এখন এসব কথা একেবারেই অর্থহীন।’

‘হোয়াই চিট ইন্ডিয়া’ শিক্ষাব্যবস্থাকে ঠোকে। এটাই প্রযোজক হিসাবে ইমরান হাসমির প্রথম কাজ। রিলিজের একদিন আগে নাম পরিবর্তন নিয়ে ইমরান আইএএনএস-কে বলেন, ‘সেন্ট্রাল বোর্ড অপ ফিল্ম সার্টিফিকেশন এর সদস্যদের মনে হয়েছে নামটা বিভ্রান্তি ছড়াবে। তাদের মতে আমাদের সিনেমা দেশ সম্পর্কে নেতিবাচকতা ছড়াবে। কিন্তু আমি চেয়েছিলাম আমাদের সামনেই আয়নাটা ধরতে। ওরা বুঝলেন না।’

ইমরান হাসমির মতে, দিনের শেষে শিক্ষা ব্যবস্থার গরমিলগুলোই তুলে ধরে এই সিনেমা। ‘যদি চিন্তা ও বিশ্লেষণী শক্তি ঠিক থাকে তাহলে আপনি এমন অযৌক্তিক হাবভাব করবেন না। শেষ মুহূর্তে নাম পরিবর্তনের কোনও মানেই হয় না। তবে ইমরানের দাবি, এই নাম পরিবর্তন সিনেমার আসল উদ্দেশ্যকে কোনোভাবে খাটো করতে পারবে না।

এটুকুই স্বান্তনা- দর্শক সিনেমা যথেষ্ট ভালোই বুঝতে পারেন। তারা বিষয় ভাবনার জন্য সিনেমা দেখেন। আমার আশা নাম পরিবর্তনের জন্য সিনেমার ব্যবসা কোনও ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে না বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন তিনি।

সৌমিক সেন পরিচালিত ‘হোয়াই চিট ইন্ডিয়া’ মুক্তি পাবে আগামী ১৮ জানুয়ারি।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.