বিধ্বস্ত লায়ন এয়ারের ‘ভয়েস রেকর্ডার’ উদ্ধার

বিধ্বস্ত লায়ন এয়ারের ‘ভয়েস রেকর্ডার’ উদ্ধার।

ইন্দোনেশিয়ার জাভা সাগরে লায়ন এয়ারের বিধ্বস্ত বিমানটির ব্ল্যাকবক্সের ভয়েস রেকর্ডার খুঁজে পাওয়া গেছে। আজ সোমবার সকাল ৮টায় এটির সন্ধান পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন দেশটির নৌবাহিনীর মুখপাত্র।

দেশটির নৌবাহিনীর মুখপাত্র আগুং নুগ্রোও রয়টার্সকে বলেছেন, ‘সাগরের তলদেশে আট মিটার (২৬ ফুট) গভীরে কাঁদামাটিসহ ভয়েস রেকর্ডারটির অবস্থান জানা গেছে। এতে অবশ্যই আঁচড় লেগেছে এবং এখন পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না তা কি পরিমাণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

উপপরিচালক হরিয় সাটমিকো রয়টার্সকে বলেছেন, ‘ককপিট ভয়েস রেকর্ডার (সিভিআর) পাওয়া গেছে, তবে আমরা এখনো অবস্থানের তথ্য পাইনি।’

গত ২৯ অক্টোবর দুইজন পাইলট ও ছয়জন কেবিনক্রুসহ ১৮৯ জন যাত্রীসহ ইন্দোনেশিয়ায় লায়ন এয়ারওয়েজের বোয়িং-৭৩৭ সিরিজের ম্যাক্স ৮ মডেলের একটি বিমান সাগরে বিধ্বস্ত হয়। এই ঘটনায় কাউকেই জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এরপর নভেম্বরে বিমানের ব্ল্যাকবক্সের ডাটা রেকর্ডার উদ্ধার করা হয়।

এই ভয়েস রেকর্ডার উদ্ধার হলে এর মাধ্যমে বিমানের পাইলট ও গ্রাউন্ড কন্ট্রোলারের শেষ কথোপকথন জানা যাবে। এছাড়া ব্ল্যাকবক্সের তথ্য যাচাই করে বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ জানতে ৬ মাসের মতো সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

বিবিসি বলছে, পাইলট বিমানটি বিমানবন্দরে ফিরে যাওয়ার জন্য এয়ার ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমতি চেয়েছিলেন। এরপরই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

তদন্তকারীরা জানান, বিমানটি প্রযুক্তিগত সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলো। বিমানের মূল কাঠামোটি এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.