ঢাকা থেকে যাত্রা শুরু করলো সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের এয়ারবাস এ৩৫০-৯০০ ফ্লাইট

ঢাকা থেকে যাত্রা শুরু করলো সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের এয়ারবাস এ৩৫০-৯০০ ফ্লাইট।

ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটে প্রথমবারের মতো যাত্রা শুরু করলো সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের নতুন এ৩৫০-৯০০ মিডিয়াম হউল এয়ারক্র্যাফট। সম্প্রতি এয়ারক্রাফটির উদ্বোধনী ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। এসকিউ৪৪৬ নম্বর ফ্লাইটে এয়ারক্র্যাফটি সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় আসে এবং আবার ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুর যায় এসকিউ৪৪৭ নম্বর ফ্লাইটে।
এ৩৫০-৯০০ মিডিয়াম হউল এয়ারক্র্যাফটের উদ্বোধনী ফ্লাইটের ‘বোর্ডিং অ্যানাউন্সমেন্ট’ দেন সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার জর্জ রবার্টসন।
সম্প্রতি, আঞ্চলিক পথে চালু হওয়া এয়ারলাইন্সটির নতুন এ৩৫০-৯০০ মিডিয়াম হউল এয়ারক্র্যাফটির বিজনেস ক্লাস কেবিনে রয়েছে ১-২-১ আসন বিন্যাসে ৪০ সিট রয়েছে, যেখানে সারি ও আসনের মধ্যে সরাসরি চলাচলের সুবিধা থাকবে। অন্যদিকে, ইকোনমি ক্লাসে রয়েছে ২৬৩টি আসন। ইকোনমি ক্লাসের আসন বিন্যাস হলো ৩-৩-৩।
এ৩৫০-৯০০ মডেলের এয়ারবাসটিতে রয়েছে অত্যাধুনিক ‘থ্যালস অ্যাভান্ট’ বিনোদন সিস্টেম। এয়ারক্র্যাফটির নকশায় রয়েছে নতুন ইউজার ইন্টারফেস, যা যাত্রীদের দিবে নেভিগেশন অপশন সহ ভিন্নধর্মী ভ্রমণ অভিজ্ঞতা। ভ্রমণকারীরা সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের নতুন এই এয়ারবাসটিতে স্ব-নিয়ন্ত্রণে মাইক্রিসওয়ার্ল্ডের ইন ফ্লাইট এন্টারটেনমেন্ট (আইএফই) উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়াও, এয়ারবাসটির অভ্যন্তরে ভ্রমণকালীন সময়ে ভ্রমণকারীরা উচ্চগতি সম্পন্ন ওয়াই-ফাই সুবিধা পাবেন। এ৩৫০-৯০০ এয়ারক্র্যাফটিতে সিতাঅনএয়ারের ইনমারাসাত জিএক্স অ্যাভিয়েশনের ব্রডব্যান্ড কানেকটিভিটি রয়েছে।
এ বিষয়ে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের বাংলাদেশে জেনারেল ম্যানেজার জর্জ রবার্টসন বলেন, ‘বিগত ৩৪ বছর ধরে আমরা বাংলাদেশ থেকে আমাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছি। এই সময়কালে, গ্রাহকদের উন্নতমানের সেবা নিশ্চিত করতে ও আরও অধিক সংখ্যক ফ্লাইট চালু করতে আমরা প্রচুর বিনিয়োগ করেছি। তাই, বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এয়ারবাস এ৩৫০-৯০০ মিডিয়াম হউল এয়ারক্র্যাফটি চালু করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। আমাদের বহরে যুক্ত হওয়া অত্যাধুনিক নতুন এই এয়ারক্র্যাফট আমাদের সুযোগ করে দিবে গ্রাহকদের জন্য আকাশে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সুবিধা পৌঁছে দেয়ার। এর জন্য যা যা দরকার তার সবকিছুই আমাদের সর্বাধুনিক কেবিনে রয়েছে।’
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী। এছাড়াও, অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান ও এয়ার কমডোর মো. খালিদ হোসেন, সদস্য (পরিচালনা ও পরিকল্পনা), বাংলাদেশে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের কনসাল উইলিয়াম চিক, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রæপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আহসান এবং আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের প্রধান মোশারফ হোসেন।
অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, “বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে শীর্ষস্থানীয় দেশের তালিকায় রয়েছে সিঙ্গাপুর। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণের ফলে বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের মধ্যে সম্পর্ক আরও জোরালো হয়েছে। সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স ও বাংলাদেশ সরকারের অ্যাভিয়েশন খাতের উন্নয়নের পাশাপাশি ব্যবসায়িক খাতের বিকাশে কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে। সিঙ্গাপুর এয়ালাইন্সের এই নব যাত্রা সফল হোক।”
অনুষ্ঠানে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার জর্জ রবার্টসন সহ প্রতিষ্ঠানটির পক্ষে আরও উপস্থিত ছিলেন স্টেশন ম্যানেজার কুনজি লিম ও হেড অব সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং রিফাত কাদের।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.