সন্তান আসবে পরিকল্পনায়

সন্তান আসবে পরিকল্পনায়।

দীপা-রাজিবের বিয়ে হয়েছে মাস-খানিক হয়েছে। মাত্রই তারা বিয়ের পর সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে নিজেদের কাজে মন দিয়েছেন। এরই মধ্যে পরিবার ও বন্ধুদের অনেকেই জানতে চাইছে বিয়ে তো হয়ে গেছে, এবার সুখবর কবে দিচ্ছো?

এই সুখবর মানে তারা সন্তানের নেওয়ার কথা বলছেন। প্রতিটি দম্পতির নিজস্ব কিছু পরিকল্পনা থাকে। তাদের নিজেদের জন্য কিছু স্বপ্নও থাকতে পারে। যেমন কোথাও ঘুরতে যাওয়া, কাজের জায়গায় একটু সেট হওয়া। সন্তান নেওয়ার জন্যও নিশ্চয় তাদের পরিকল্পনা থাকে। আর প্রতিটা পরিবার এবং কাছের বন্ধুদের উচি‍ত তাদেরকে নিজেদের মতো করে সিদ্ধান্ত নিতে দেওয়া। আর এই বিষয়ে কাউকে উপদেশ বা চাপ দিয়ে বিব্রত না করা। এটা সম্পূর্ণই তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত।

এই যেমন ভারতের মিডিয়াতে কাজ করা হ্যাপি কাপলের তালিকাটা বেশ লম্বা। একই ইন্ডাস্ট্রিতে থেকে বিয়ে করে সুখেই ঘরকন্না করছেন রবি দুবে ও সর্গুণ মেহতা। সম্প্রতি এই দম্পতিকে এক সাক্ষাৎকারে জানতে চাওয়া হয়েছিল, তারা সন্তান নেওয়ার কথা ভাবছেন কবে?

উত্তরে রবি দুবে জানান, আমাদের মিডিয়াকে কাজ করে একটা অবস্থান তৈরি করা বেশ কঠিন। সর্গুণ ভালো করছে, তার নিজেকে শক্ত অবস্থানে ধরে রাখতে আরও সময়ের প্রয়োজন। তবে আমরাও সন্তান চাই, কিন্তু তা এখনই নয়। কারণ একজন মায়ের শারীরিক, মানসিক ও দায়িত্বে অনেক ধরনের পরিবর্তন আসে সন্তান জন্মের পরে। আর লম্বা একটা বিরতির পরে আবার সেভাবে ব্যাক করাও কঠিন হয়ে যায় অনেক সময়। এজন্য আমরা এখনই কোনো চাপ নিচ্ছি না।

বিয়ের অর্থ শুধু সন্তান জন্মদানই নয়, এখানে আরও অনেক কিছু করার রয়েছে। সন্তান পুরো দাম্পত্য জীবনের একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তবে সন্তান নেওয়া, না নেওয়া বা কখন নেবে সেই সিদ্ধান্ত কাউকে চাপিয়ে দেওয়া উচিত নয়।

সন্তান জন্মের ক্ষেত্রে অনেক নারী-পুরুষেরই এক ধরনের ভীতিও কাজ করে, যদি এমন হয়, তবে সঙ্গীর পাশে থাকুন। একটা সময় পর্যন্ত তাকে সময় দিন। তারপর নিজেরা আলোচনা করুন। কোনো শারীরিক সমস্যা থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। আর প্রয়োজনে কাউন্সিলিং করুন। তবে যাই করবেন, সঙ্গী বিব্রত হন এমন বিষয় কাউকে বলবেন না।

পরিকল্পনা করে সন্তান নিন, তার সুন্দর ভবিষ্যত নিশ্চিত করুন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.