সর্বদা প্রস্তুত, বিমান ধ্বংসের সক্ষমতা দেখালো তাইওয়ান

চীনের নজিরবিহীন মহড়ার পর তাইওয়ানের বিমান বাহনী তাদের বিমান-বিধ্বংসী সক্ষমতা দেখিয়েছে এবং এ ব্যবস্থা ২৪ ঘন্টার জন্যই প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে।

তাইওয়ানের পূর্ব উপকূলের গুরুত্বপূর্ণ হুয়ালিয়েন ঘাঁটিতে বিমান বাহিনী নিজেদের তৈরি স্কাই বো ৩ ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপণযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্রসহ বিমান-বিধ্বংসী ব্যবস্থা প্রদর্শন করেছে।

এছাড়াও, ওয়েরলিকন জিডিএফ-০০৬ ৩৫ এমএম বিমান-বিধ্বংসী অস্ত্রও প্রদর্শন করেছে তাইওয়ান। চীনের সামরিক মহড়া এবং উত্তেজনা বাড়া নিয়ে তারা ভীত নয় বলেও জানিয়েছে।

তাইওয়ানের বিমান প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা চেন তে হুয়ান বলেছেন, “সেই সময় (চীনের মহড়া) আমরা মোটেও নার্ভাস ছিলাম না। কারণ, ২৪-ঘন্টা ক্ষেপণাস্ত্র পরিচালনায় আমাদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ সারাদিনের জন্যই প্রস্তুত ছিল।”

“চীনের সামরিক বাহিনী তাদের কর্মকাণ্ড চালানোর সময় আমরা আগেভাগেই ভালভাবে প্রস্তুত হয়ে ছিলাম।”

চলতি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইপে সফরের পর তাইওয়ান ঘিরে কয়েক দিন বিমান ও নৌ মহড়া চালিয়েছিল চীন। তাদের নজিরবিহীন ওই মহড়ায় তাইওয়ান প্রণালীতে সংঘাতের প্রবল ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছিল।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.