বাহরাইনগামী বাংলাদেশি যাত্রীদের জন্য নতুন নির্দেশনা

বাহরাইনগামী বাংলাদেশি যাত্রীদের জন্য দেশ থেকে ৪৮ ঘণ্টা আগে করা পিসিআর পরীক্ষার করোনা নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আগামীকাল ২৭ এপ্রিল থেকে এ নিয়ম কার্যকর হবে।
নতুন এ নিয়ম পালনে বাংলাদেশিদের সঙ্গে ভারতীয় ও পাকিস্তানি প্রবাসীরাও আছেন।

বাহরাইনে পৌঁছানোর পরই বিমানবন্দরে সব দেশের যাত্রীদের জন্য পিসিআর পরীক্ষা করার নিয়ম বহাল থাকলেও তিন দেশের জন্য বাড়তি এই নিয়ম যুক্ত করা হয়েছে।
সরকারি বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, করোনাভাইরাস মোকাবিলার জন্য জাতীয় মেডিকেল টাস্কফোর্স বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তানের ৬ বছরের বেশি বয়সী যাত্রীদের জন্য নতুন এই পদ্ধতি যুক্ত করেছে।

এ তথ্য নিশ্চিত করে বাংলাদেশ দূতাবাস বাহরাইনগামী প্রবাসী বাংলাদেশিদের সরকার নির্ধারিত কেন্দ্রগুলো থেকে ভ্রমণের ৪৮ ঘণ্টা আগে কিউআর কিউআর কোডসহ মুদ্রিত কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ নেওয়ার নতুন নির্দেশনার অনুরোধ জানিয়েছে।

বাহরাইনে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম) শেখ মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, “অনেক আগেই বাংলাদেশ সরকার বিদেশগামী সবার জন্য করোনাভাইরাসের নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক করেছে, তারপরও বাহরাইন সরকার যখন নতুন নির্দেশনা দিয়েছে আমরা দেশ থেকে বাহরাইনগামী প্রবাসীদের এই বিষয়ে সচেতন করতে জোর দিয়ে বলছি, ভ্রমণের ৪৮ ঘণ্টা আগে পিসিআরভিত্তিক কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ নিশ্চিত করেই যেন ফ্লাইটে ওঠেন।”

তিনি আরও জানান, বাংলাদেশিদের জন্য করোনা নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলকের সঙ্গে ভ্রমণ সম্পর্কিত আগের সব নিয়ম কার্যকর থাকবে।
সব প্রবাসী বাংলাদেশিকে আগমনের পরে বাহরাইন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবশ্যই পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে এবং ফলাফল আসা পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।
এছাড়া তাদের ৫ম এবং ১০ম দিনে আবার পিসিআর পরীক্ষা করতে হবে। বাহরাইনে আসার আগে “BeAware Bahrain” মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনে নিবন্ধন বা ডাউনলোড করতে হবে।

এদিকে বাহরাইন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, যাত্রীদের পায়ের ছাপের স্টিকার অনুসরণ করে টার্মিনালে সামাজিক দূরত্বের ব্যবস্থাগুলো অবশ্যই মেনে চলতে হবে।
যাত্রীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। যেসব যাত্রী প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাগুলো মেনে চলবেন না তাদের বিমানবন্দরে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হবে।

টার্মিনাল জুড়ে সার্বক্ষণিক স্যানিটাইজ ব্যবস্থার পাশাপাশি আল্ট্রাভায়োলেট প্রযুক্তি ব্যবহার করে এমন রোবট বিমানবন্দর জীবাণুমুক্ত করার জন্য মোতায়েন করা হয়েছে এবং ট্র্যাভেলেটর এবং এসকেলেটরে হ্যান্ড্রেল জীবাণুনাশক সিস্টেম স্থাপন করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।
সূত্রঃ দ্য ডেইলি স্টার

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.