তরুণদের কাছে ব্রিটেনের রানীর পরেই জনপ্রিয় হ্যারি-মেগান

ব্রিটেনের প্রিন্স হ্যারি এবং মেগান মার্কেলকে ব্রিটেনের তরুণরা রানির পর ‘সবচেয়ে সম্মানিত’ রাজকীয় সদস্য হিসাবে ভোট দিয়েছে।
কিশোর-কিশোরীদের মধ্যে ইতিবাচক মানসিক স্বাস্থ্যের প্রচার করে এমন দাতব্য সংস্থা স্টেম ৪-এর নেতৃত্বে পরিচালিত একটি সমীক্ষা থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

১৩ থেকে ২৫ বছর বছর বয়সী ১ হাজার ৩২ জন ব্যক্তির পরিচালিত সমীক্ষায় দেখা গেছে, তাদের মধ্যে ২৬ শতাংশ রানী এলিজাবেথকে ‘সর্বাধিক সম্মানিত’ রাজকীয় হিসাবে ভোট দিয়েছেন, তারপরেই ছিলেন ডিউক এবং ডাচেস অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারি এবং মেগান মার্কেল।
তারা ২১ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন।
প্রিন্স উইলিয়াম এবং কেট মিডলটন ভোট পেয়েছেন ১১ শতাংশ ভোট।
ভোটারদের মতে, মেগান এবং হ্যারি প্রশংসিত কারণ তারা ‘সাহসী এবং স্থিতিস্থাপক’ এবং এমনকি সবকিছু যখন প্রতিকূলে থাকে তখনও তারা এগিয়ে যায়।

স্টেম ৪-এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ডক্টর নীহার ক্রাউস একটি বিবৃতিতে বলেছেন, ‘তরুণদের সম্মান অর্জন করার জন্য আজ আপনার ভাগ্য অর্জন করার দরকার নেই বা ভাল চেহারা দরকার নেই।
অন্যের জন্য এবং প্রকৃতির প্রতি সাহসিকতা, নমনীয়তা এবং মমত্ববোধ প্রদর্শন করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।
এগুলি হচ্ছে রানির মধ্যে থাকা নির্দিষ্ট কিছু গুণাবলী যা অবশ্যই এই তালিকায় থাকা আরও কিছু নাম যেমন ডেভিড অ্যাটেনবারো এবং মার্কাস রাশফোর্ডের মধ্যেও রয়েছে।’

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.