বিমান হামলার নিন্দার মধ্যেও যুদ্ধ চালানোর অঙ্গীকার নেতানিয়াহুর

রাফাহর আশ্রয়শিবিরে ইসরায়েলি বাহিনীর বিমান হামলাকে স্রেফ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা বলে উড়িয়ে দিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। হামলার আন্তর্জাতিক নিন্দা সত্ত্বেও শহরটিতে হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করলেন তিনি। ভয়াবহ ওই হামলার পর সোমবার ( ২৭ মে) পার্লামেন্টে দেওয়া ভাষণে এ অঙ্গীকার করেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

ভাষণে নেতানিয়াহু আরও বলেন, রাফাহ থেকে আমরা এরই মধ্যে অন্তত ১০ লাখ বেসামরিক লোকদের সরিয়ে নিয়েছে। তাদের ক্ষতি না করার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা সত্ত্বেও দুর্ভাগ্যবশত কিছু মর্মান্তিক ভুল হয়ে গেছে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

হামলার ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে বলেও জানালেন নেতানিয়াহু। বললেন, এই যুদ্ধে যারা জড়িত নন, তারা যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হন, সে বিষয়ে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলি বাহিনী।

রাফাহয় রবিবারের ওই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। ইসরায়েলকে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের (আইসিজে) সাম্প্রতিক নির্দেশনা মেনে রাফায় হামলা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। রবিবারের হামলাকে ভয়াবহ বলে উল্লেখ করেছেন ইইউ প্রধান জোসেফ বোরেল।

রবিবার রাফাহ’র তাল আল সুলতানের একটি আশ্রয়শিবিরে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত ৪৫ জন নিহত হয়। হামলায় হামাসের দুই কমান্ডার নিহতের দাবি করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। তবে তবে ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট বলেছে, জাতিসংঘের অস্থায়ী অফিসের কাছের ওই আশ্রয়কেন্দ্রকে লক্ষ্য করেই হামলাটি চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.