আলাস্কার আকাশ সীমার কাছে রাশিয়ার সামরিক নজরদারি বিমান দেখা গেছে

যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী বলেছে যে রাশিয়ার সামরিক নজরদারি বিমান গত দুই দিনে দুটি পৃথক ঘটনায় আলাস্কান এয়ার ডিফেন্স আইডেন্টিফিকেশন জোনে প্রবেশ করেছে।

একজন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা ভয়েস অফ আমেরিকাকে জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এফ-২২ যুদ্ধবিমান আকাশসীমায় প্রবেশ করার পর দ্বিতীয় বিমানটিকে আটকে দেয়। কর্মকর্তা আরো বলেছেন, উভয় প্রবেশ-ক্ষেত্রে রাশিয়ার একই ধরণের নজরদারি বিমান জড়িত।

এয়ার ডিফেন্স আইডেন্টিফিকেশন জোন একটি দেশের আকাশসীমার বাইরে প্রসারিত করে এমন একটি এলাকা অন্তর্ভুক্ত করে যেখানে একটি দেশ জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে বিমান সনাক্ত এবং নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে।

বুধবার উত্তর আমেরিকার অ্যারোস্পেস ডিফেন্স কমান্ড, বা নোরেড এর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট অনুসারে রাশিয়ার বিমানটি আন্তর্জাতিক আকাশসীমায় ছিল এবং আমেরিকা বা কানাডার সার্বভৌম আকাশসীমাতে প্রবেশ করেনি।

পোস্টটিতে আরো বলা হয়েছে যে, “আমরা উত্তর আমেরিকা এবং সুমেরু অঞ্চল অর্থাত্ আর্কটিক সার্বভৌমত্বের প্রতিরক্ষায় বেশ কয়েকটি বিকল্প প্রতিক্রিয়া ব্যবহার করতে প্রস্তুত আছি,”।

এটি ২০২২ সালে আলাস্কার আকাশসীমার কাছাকাছি রাশিয়ার সামরিক বিমানের অনুপ্রবেশের চেষ্টার প্রথম রিপোর্ট করা ঘটনা, তবে সাম্প্রতিক বছরগুলিতে এ গুলো খুব নিয়মিত ব্যাপার হয়ে উঠেছে।

রাশিয়ার সামরিক বিমানগুলি ২০২০ সালে ১৪ বার আলাস্কান এয়ার ডিফেন্স আইডেন্টিফিকেশন জোনে ট্র্যাক করা হয়েছিল, সাম্প্রতিক বছরগুলিতে এটি সর্বোচ্চ, মাত্র এক মাসের ব্যবধানে এই ধরনের ছয়টি ঘটনা ঘটেছে।

ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেনে ব্যাপক আগ্রাসন চালায়।

এই বছরের শুরুর দিকে ভয়েস অফ আমেরিকার সাথে কথা বলার সময়, আলাস্কার সিনেটর ড্যান সালিভান বলেছিলেন যে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীকে সাম্প্রতিক বছরগুলিতে রাশিয়ার সামরিক বিমানগুলিকে আটকানোর জন্য “সম্ভবত ১৯৮০ এর দশকের মাঝামাঝি থেকে অন্য যে কোনও সময়ের চেয়ে বেশি” যুদ্ধবিমান সেখানে পাঠিয়ে “প্রতিবন্ধকতা ” সৃষ্টি করতে হয়েছে।

সালিভান বলেন, “তারা এখানেও আগ্রাসী, এবং একমাত্র জিনিস যা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বোঝেন এবং আমার দৃষ্টিতে একমাত্র জিনিস যা চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এই কর্তৃত্ববাদী আগ্রাসনের নতুন যুগে বোঝেন তা হল “ক্ষমতা”। .

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.