যুক্তরাষ্ট্রে দুই যুদ্ধ বিমানের সংঘর্ষ, ৬ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা

মাঝ আকাশে সংঘর্ষ। যার জেরে মাটিতে আছড়ে পড়ল দুই যুদ্ধ বিমান। ঘটল বিস্ফোরণও। যুক্তরাষ্ট্রের এয়ার শোর সময় দুটি উড়োজাহাজের সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষের পর বিধ্বস্ত হওয়া উড়োজাহাজের একটি বড় আকারের বোয়িং বি-১৭ বোমারু বিমান এবং অন্যটি ছোট বিমান বেল পি-৬৩ কিংকোবরা। দুই উড়োজাহাজে ৬ জন ছিলেন। আশঙ্কা করা হচ্ছে, তাঁরা সবাই মারা গেছেন। দুর্ঘটনা মুহূর্তের সেই ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে।

স্থানীয় সময় শনিবার টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ডালাস এক্সিকিউটিভ বিমানবন্দরে ডালাস এক্সিকিউটিভ বিমানবন্দরে একটি এয়ার শোতে মাঝ আকাশে সংঘর্ষ হয় ওই দুই উড়োজাহাজের। সংঘর্ষের পরপরই মাটিতে পড়ে আগুন ধরে যায় উড়োজাহাজের। সংঘর্ষের সঙ্গে সঙ্গেই বোয়িং বি-১৭ বোমারু উড়োজাহাজের পেছনের অংশ ভেঙে যায়।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ) জানিয়েছে, উভয় উড়োজাহাজের পাইলটদের অবস্থা এখনো নির্ধারণ করা হয়নি। এরই মধ্যে ঘটনাটির তদন্ত শুরু হয়েছে।

বিমানবন্দরে উপস্থিত বেশ কয়েকজন নিজেদের মোবাইলে ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করেছেন। সেসব ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে সংঘর্ষের ভয়াবহ দৃশ্য।

এক ভিডিওতে দেখা যায়, বোয়িং বি-১৭ বোমারু বিমানকে আঘাত করছে বেল পি-৬৩ কিংকোবরা ছোট বিমান। এরপর বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয় বিমান দুটি।

ডালাসের মেয়র এরিক জনসন জানান, “ঘটনার ব্যাপারে এখনো বিস্তারিত বিবরণ অজানা বা অনিশ্চিত রয়েছে। আপনারা অনেকেই এখন (ভিডিওটি) দেখেছেন, আমাদের শহরে একটি এয়ার শো চলাকালে ভয়াবহ ট্র্যাজেডি হয়েছে”।

“ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি বোর্ড, ডালাস পুলিশ বিভাগ এবং ডালাস দমকল বাহিনী উদ্ধারে সহায়তা প্রদান অব্যাহত রেখেছে”।

বোয়িং বি-১৭ উড়োজাহাজটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জার্মানির সঙ্গে যুদ্ধে জিততে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল এর পর থেকে এ ধরনের উড়োজাহাজ প্রচুর পরিমাণে তৈরি করা হয়েছে।

আর পি-৬৩ কিংকোবরাজাতীয় উড়োজাহাজও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় প্রথম তৈরি করা হয়েছিল। এগুলো ব্যবহার করত সোভিয়েত রাশিয়া।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.