জাপার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শুরু, ফরম নেননি রওশন

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে জাতীয় পার্টির (জাপা) মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ শুরু হয়েছে। তবে, এখনো মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেনি জাপার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ। এমনকি মনোনয়ন ফরম নেননি তার ছেলে সাদ এরশাদও।

আজ শুক্রবার সকালে জাপা চেয়ারম্যানের বনানীর কার্যালয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শুরু হয়। সকাল থেকে জাপার রংপুর বিভাগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হচ্ছে। দুপুরের পরে রাজশাহী বিভাগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। পাশাপাশি দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রিও চলছে।

মনোনয়ন বোর্ডে জাপা চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের, মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, কো-চেয়ারম্যান এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, কাজী ফিরোজ রশীদ ও সৈয়দ আবু হোসেনসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত রয়েছেন।

এসময় দলের মহাসচিব মুজিবুল হক সাংবাদিকদের বলেন, দুয়েকটি বাদে ৩০০ আসনেই একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। মনোনয়ন দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রার্থীদের এলাকায় প্রভাব ও ব্যক্তিগত জনপ্রিয়তার বিষয়গুলো মাথায় রাখা হচ্ছে। আগামী সোমবার (২৭ নভেম্বর) জাপার মনোনীত প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করা হতে পারে।

দিনাজপুর-৩ আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলার সাধারণ সম্পাদক আহমেদ শফি। মনোনয়ন বোর্ডের সাক্ষাৎকারের ব্যাপারে তিনি বলেন, কেন নির্বাচন করতে চাই, মাঠের পরিস্থিতি, মনোনয়ন দেওয়া না হলে দলের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করব কি না- এসব বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়েছে।

এর আগে, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী গত ২০ নভেম্বর থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে জাপা। গতকাল (বৃহস্পতিবার) ছিল ফরম বিক্রির শেষ দিন। তবে, গতকাল রাতে জানানো হয় যে, আজ (শুক্রবার) বিকেল পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমার সময় বাড়ানো হয়েছে।

জানা গেছে, মূলত রওশন এরশাদ ও সাদ এরশাদের জন্য মনোনয়ন ফরম বিক্রির সময় বাড়ানো হয়েছে।

এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক সাংবাদিকদের বলেন, রওশন এরশাদ ফরম নেননি, তবে নেওয়ার সম্ভাবনা আছে৷ গতকালও তাঁর সঙ্গে কথা হয়েছে৷ রওশন এরশাদের জন্য কোনও সময়ের বাধ্যবাধকতা নেই৷ তিনি বললে মনোনয়ন ফরম তাঁর বাসায় পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিলেও জাপার অভ্যন্তরীণ সংকট এখনো কাটেনি। কয়েক বছর ধরেই ভাবি-দেবরের কোন্দলের বিষয়টি বারবার সামনে এসেছে। এমনকি ২০২১ সালে এরিক এরশাদ রওশন এরশাদকে পার্টির চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দেওয়ায় বিষয়টি শেষ পর্যন্ত আদালতে গড়ায়।

এর মধ্যেই চলতি বছরের ২২ আগস্ট এক প্রেস নোটে নিজেকে জাপার চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা করেন দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ। তখন বলা হয়, দলের কো চেয়ারম্যানদের অনুরোধে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি। কিন্তু তার এ দাবি নাকচ করেন সেসব কো-চেয়ারম্যানরা।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.