ই-মেইল বা ফোনে কাতার এয়ারের টিকিট কাটা যাবে, প্রথমে বুকিং করতে হবে

কাতার এয়ারওয়েজ কতৃপক্ষ জানিয়েছে তাদের অফিসে টেলিফোনে বা ইমেইল করে যাত্রীরা টিকিট বুকিং দিতে পারবেন। সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কাতার এয়ারওয়েজ কতৃপক্ষ এই কথা জানান। বিজ্ঞপ্তিতে তারা বলেছেন, যেহেতু অব্যবহৃত টিকিটে পুনরায় আসন সংরক্ষণ প্রত্যাশী যাত্রীর প্রচুর চাহিদা রয়েছে, তাই প্রচুর লোক টিকিট বুকিং করতে বাংলাদেশে আমাদের অফিসে এসেছিলেন ও দুর্ভাগ্যক্রমে সামাজিক দূরত্ব পালন করেননি। আমাদের গ্রাহক ও কর্মচারীদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা প্রধান অগ্রাধিকার। আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সাময়িকভাবে অফিসটি বন্ধ করে দিয়েছি। এখন যাত্রীদের বুকিং সহায়তার জন্য কাতার এয়ার ওয়েজ অফিসে ই-মেইল বা কল করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

১৬ জুন থেকে প্রতি সপ্তাহে ৩টি করে বাংলাদেশে আসা ও যাওয়ার ফ্লাইট পরিচালনা করার অনুমোদন পেয়েছে। তিন মাস আগে ২২ মার্চ একটি নোটাম স্থাপনের পর, দুর্ভাগ্যক্রমে বিপুলসংখ্যক যাত্রীর বুকিং ছিল যা ব্যবহার করা যায়নি।

বিজ্ঞপ্তিতে তারা আরো জানিয়েছেন,  আমাদের প্রধান অগ্রাধিকারগুলোর মধ্যে একটি হল এই যাত্রীদের অব্যবহৃত বুকিং দিয়ে সহায়তা করা এবং কোনো অতিরিক্ত চার্জ ছাড়া ফ্লাইটগুলোতে বিদ্যমান আসনের ব্যবস্থা করা। সামাজিক দূরত্ব বজায়ে রাখতে প্রতিটি ফ্লাইটে ২৫% আসন খালি থাকার সীমাবদ্ধতার জন্য এয়ারলাইন্সকে বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশন বিধিও প্রয়োগ করতে হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.