পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কার ঘটনায় ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি

পদ্মা সেতুর পিলারের সঙ্গে রো রো ফেরির ধাক্কা লাগার ঘটনায় ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)। আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট প্রদানের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কমিটিকে।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম খান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক আশিকুজ্জামানকে আহ্বায়ক করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পরিচালক মো. শাহ জাহান, এজিএম আহমেদ আলী ও এজিএম রুবেলুজামানকে সদস্য করা হয়েছে কমিটির।

৪ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে সংস্থার চেয়ারম্যান বরাবর রিপোর্ট প্রদানের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে বলেও জানান জাহাঙ্গীর আলম খান।

এদিকে, সেতুর পিলারে ধাক্কা লাগার ঘটনায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে চলাচলকারী ফেরি ‘শাহজালাল’-এর ইনচার্জ ইনল‍্যান্ড মাস্টার অফিসার আব্দুর রহমানকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ শুক্রবার (২৩ জুলাই) তাকে বরখাস্ত করা হয়। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আজ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে।

সকাল ১০টার দিকে পদ্মা সেতুর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা খায় ‘শাহজালাল’ নামের একটি রো রো ফেরি। এতে ২০ জন যাত্রী আহত হন বলে জানিয়েছেন অন্য যাত্রীরা। ফেরিটি মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে রওনা দিয়ে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে আসছিল।

দুর্ঘটনার পর ফেরি চালক আব্দুল রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘ফেরির ইলেকট্রনিক সিস্টেম হঠাৎ ফেল করে। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলি। নদীতে তীব্র স্রোতের থাকায় ফেরিটি পিলারে গিয়ে ধাক্কা লাগে।’

এ ব্যাপারে শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) বিআইডব্লিউটিসি কর্মকর্তা ফয়সাল আহম্মেদ বলেন, ফেরি শাহজালাল পদ্মা সেতুর ১৭ নং পিলারের সঙ্গে ধাক্কা খায়। তবে চালক দ্রুত ফেরিটি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার কারণে বড় কোনো বিপদ ঘটেনি। ফেরিটির তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি।

যাত্রী আহত হওয়ার বিষয়ে তিনি জানান, ফেরিটি শিমুলিয়া ঘাটে আসার পর তেমন আহত কাউকে দেখিনি। সবাইতো যার যার মতো চলে গেছে। একজন পায়ে ব্যথা নিয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটছে দেখলাম। এই রুটে এখন ১২টি ফেরি চলাচল করছে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের জানান, রো রো ফেরির ধাক্কা লেগেছে, তবে কোনো সমস্যা হয়নি। আমরা এসব কথা চিন্তা করে সেতু নির্মাণ করেছি। ১০০ টনের বিশাল জাহাজ ধাক্কা মারলেও সেতুর কিছু হবে না, তবে পিলারে সামান্য ঘষা লাগতে পারে। তারপরও আমাদের টিম গেছে ঘটনাস্থলে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.