ট্যুরিজম এক্সপোতে চলছে অফারের ছড়াছড়ি

ভ্রমণপিয়াসী দর্শনার্থীদের আনাগোনায় জমে উঠেছে ট্যুরিজম এক্সপো। মেলায় পর্যটকদের ভ্রমণ প্যাকেজে মূল্যছাড়সহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে ট্যুর অপারেটর ও এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠানগুলো। ট্যুরিজম এক্সপোতে চলছে অফারের ছড়াছড়ি।
গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু এ মেলার আজকে হলো শেষ দিন। গতকাল দ্বিতীয় দিন ছুটির দিন থাকায় ভ্রমণপিয়াসী দর্শনার্থীদের আনাগোনায় জমে উঠেছিল মেলা।
অবশ্য প্রথম দিনেই ভ্রমণপিয়াসী দর্শনার্থীদের আনাগোনায় জমে উঠছিল মেলা। তাতে নানা ছাড়ের পসরা সাজিয়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। মেলা ঘুরে দেখা গেছে, মূল্যছাড়ের কারণে অনেকে বিভিন্ন অফার বুকিং দিচ্ছেন।
এতে অনলাইন ট্র্যাভেল এজেন্সিসহ পর্যটন খাতের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ভারত, মালয়েশিয়া, ভুটান, নেপাল, মালদ্বীপ, ওমান, শ্রীলঙ্কা, তুরস্ক, আজারবাইজান, কোরিয়া, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর, সংযুক্ত আরব-আমিরাতসহ ১৫টিরও বেশি দেশের বিমান পরিবহন, ট্যুর অপারেটর, হোটেল, হাসপাতাল, রিসোর্টসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এক্সপোর আয়োজন করেছে অ্যাসোসিয়েশন অব ট্র্যাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব)। মেলা ঘুরে দেখা গেছে এতে পর্যটকদের ভ্রমণ প্যাকেজে মূল্যছাড়সহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে ট্যুর অপারেটর ও এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠানগুলো। বিভিন্ন অফার পেয়ে অনেকে বুকিং দিচ্ছেন। কেউ কেউ বিভিন্ন গন্তব্যের জন্য ফ্লাইটের টিকিট কিনছেন।
এতে ইউএস-বাংলার অভ্যন্তরীণ রুটের টিকিটে ১৫ শতাংশ ও আন্তর্জাতিক রুটে ১০ শতাংশ ছাড় দিয়েছে। সে সাথে সদ্য চালু হওয়া এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠান এয়ার অ্যাস্ট্রা টিকিটে ২০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে।

৯ হাজার ৯৯৯ টাকায় এয়ার অ্যাস্ট্রার রাউন্ড ট্রিপে কক্সবাজারে দুই রাত ও তিন দিনের আকর্ষণীয় প্যাকেজ রয়েছে। কক্সবাজার, ব্যাংকক, মালদ্বীপের টিকিট কিনলেই তিন দিন ও দুই রাত হোটেল একদম ফ্রি করেছে ইউএস বাংলা।
অন্য দিকে নভোএয়ার রাজশাহী-কক্সবাজার বা যশোর-কক্সবাজারে ভ্রমণে রিটার্ন বিমান টিকিট ও তিন রাত চার দিনে দুইজনের ৩২ হাজার টাকা নিচ্ছে। এ ছাড়া বিমানের টিকিট কিনলে রয়েছে ১২ শতাংশ ছাড়।
টিকিটের ওপর ৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে ফ্লাইট এপপার্ট। কসমস হলিডেজ এয়ার টিকিট কিনলে ৭ শতাংশ অফার এবং মেলায় দেশের বাইরের প্যাকেজ নিলে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে। আর ট্রিপ লাভারও তাদের প্যাকেজে ৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে।
এর বাইরে প্রতিটি প্রতিষ্ঠান কোনো না কোনোভাবে নানান অফার রেখেছে। আগতরা নিজেদের সাধ্যমতো তাতে বুকিং দিচ্ছেন। এর আগে উদ্বোধনের দিনে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো: মাহবুব আলী বলেন, দেশের পর্যটন খাতের সম্ভাবনা অসীম। এই সম্ভাবনা কাজে লাগাতে অন্যান্য দেশের মানুষের সামনে বাংলাদেশের পর্যটন খাতকে তুলে ধরতে হবে। এই মেলার মাধ্যমে সেই সুযোগ পাচ্ছে দেশের পর্যটন খাত সংশ্লিষ্টরা।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.