টাকা ঘরে রেখে বিপদ ডেকে আনবেন না: শেখ হাসিনা

জনগণকে গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘ব্যাংকে টাকা নেই বলে গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে। অযথা গুজবে কান দেবেন না। পাশাপাশি ব্যাংকেও পর্যাপ্ত টাকা আছে। উপার্জিত টাকা ঘরে রেখে বিপদ ডেকে আনবেন না।’

বিজয় দিবস উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ নিয়ে অনেকেই নানা মনগড়া মন্তব্য করছেন। তিন মাসের আমদানি খরচ মেটানোর মত রিজার্ভ থাকলেই চলে। বর্তমানে আমাদের পাঁচ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর মতো বৈদেশিক মুদ্রা মজুদ আছে।’

তিনি বলেন, ‘নভেল করোনাভাইরাসের মহামারির সময় সব ধরনের ভারী যন্ত্রপাতি আমদানি, বিদেশ ভ্রমণ এবং অন্যান্য পণ্য আমদানি অনেকটা বন্ধ ছিল। সে সময় আমাদের রিজার্ভ বেড়ে ৪৮ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়। এ বিপুল পরিমাণ অর্থ অলস অবস্থায় না রেখে সেখান থেকে কিছু পরিমাণ অর্থ দিয়ে আমরা একটা বিশেষ তহবিল গঠন করেছি। সেই তহবিলের অর্থ দিয়ে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে ২ শতাংশ হার সুদে এই ঋণ দেয়া হচ্ছে। ঘরের টাকা সুদসহ ঘরেই ফেরত আসছে। এ অর্থ যদি বিদেশি ব্যাংক থেকে ঋণ হিসেবে নেয়া হতো তাহলে ৪ থেকে ৫ শতাংশ হারে সুদসহ ফেরত দিতে হতো। আর তা পরিশোধ করতে হতো রিজার্ভ থেকেই।’

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে যাওয়া প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা আরো বলেন,‘ আমাদের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে যাওয়ার আরেকটি কারণ হচ্ছে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে আমরা বেশি দামে জ্বালানি তেল, ভোজ্য তেল, গম, ডাল, ভুট্টাসহ অন্যান্য পণ্য কিনে স্বল্পমূল্যে সাধারণ মানুষের কাছে বিক্রি করছি।’

ব্যাংকে টাকা নেই বলে গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে দাবি করে সরকারপ্রধান বলেন, অযথা গুজবে কান দেবেন না। ব্যাংকে টাকার কোনো ঘাটতি নেই। উপার্জিত টাকা ঘরে রেখে বিপদ ডেকে আনবেন না। আমাদের বিনিয়োগ, রেমিট্যান্স প্রবাহ এবং আমদানি-রফতানি পরিস্থিতি সবকিছু স্বাভাবিক রয়েছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.