এইচএসবিসি ব্যাংকের বিশ্বব্যাপী ৩৫ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা

করোনাভাইরাস পরিস্তিতির মধ্যেই ব্রিটিশ বহুজাতিক বিনিয়োগ ব্যাংক এবং আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান এইচএসবিসি ব্যাংক বিশ্বব্যাপী ৩৫ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রিটিশ বহুজাতিক বিনিয়োগ ব্যাংক এবং আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বব্যাপী ৩৫ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করতে যাচ্ছে।

ব্যাংকটি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেয়। কিন্তু বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার জেরে কর্মী ছাঁটাই স্থগিত রাখা হয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটির ক্ষতিগ্রস্থ কর্মীদের অভ্যন্তরীণ কাজে লাগানোর ব্যাপারে ভাবনার কথা বলা হচ্ছিল।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার মধ্যে কর্মীরা নতুন করে কাজ খুঁজে পাবে না। আর সেই বিপর্যয়ে কর্মীদের ফেলতে চায় না প্রতিষ্ঠানটি এই কারণে এপ্রিল মাসেই এইচএসবিসি জানায়, তারা কর্মী ছাঁটাইয়ের বিষয়টি সাময়িক স্থগিত রাখবে।

গত ফেব্রুয়ারিতে প্রতিষ্ঠানটি ২০২২ সালের মধ্যে চার দশমিক পাঁচ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ কমানোর জন্য কর্মী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনা করেছে। এছাড়া যেসব খাতে লাভ কম হচ্ছিল, সেগুলোও খতিয়ে দেখেছে প্রতিষ্ঠানটি

এইচএসবিসি’র নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নোয়েল কুইন বলেছেন, বিশ্বজুড়ে দুই লাখ ৩৫ হাজার কর্মী রয়েছে এইচএসবিসি’র। বিবিসি সেই তথ্য যাচাই করে সত্যতা পেয়েছে।

এই প্রতিষ্ঠানে তিন লাখের বেশি কর্মী নিয়োগ করা হয়েছিল। কিন্তু বিশ্বব্যাপী ২০০৮ সালে অর্থনৈতিক সঙ্কট দেখা দেওয়ার পর বেশ কিছু ব্যবসা ছেড়ে দিয়েছে এইচএসবিসি, কিছু দেশ ছেড়ে চলেও এসেছে; সেসব দেশের মধ্যে রয়েছে ব্রাজিল।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্যাংকটি রাজনৈতিকভাবেও কিছু চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। চলতি মাসের শুরুর দিকে, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এইচএসবিসি’র সমালোচনা করেছেন। হংকংয়ের ওপর চীনের নতুন নিরাপত্তা আইন চাপিয়ে দেওয়াকে সমর্থন করে রাজনৈতিক নিশানায় পড়েছে ব্যাংকটি।

সূত্র : বিবিসি

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.