হাজিয়া সোফিয়াতে ১ বছরে ভ্রমণ করেছে ৩০ লাখ মানুষ

তুরস্কের ঐতিহাসিক হাজিয়া সোফিয়া মসজিদে এক বছরে ৩০ লাখেরও বেশি মানুষ ভ্রমণ করেছে। সরকারি কর্মকর্তা সূত্রের বরাতে তুরস্কভিত্তিক ডেইলি সাবাহর খবরে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের হাজিয়া সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরের ঘোষণাটি ছিল নিঃসন্দেহে ঐতিহাসিক। ২০২০ সালে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বিভিন্ন বিধিনিষেধ ছিল। তারপরেও হাজিয়া সোফিয়া মসজিদের জনপ্রিয়তা যেকোনো সময়ের থেকে সর্বাধিক। গত এক বছরে মসজিদটিতে ৩০ লাখের বেশি মানুষ ভ্রমণ করেছেন।

২০২০ সালের জুলাই থেকে ২০২১ সালের জুলাই পর্যন্ত হাজিয়া সোফিয়া মসজিদে সপ্তাহের যেকোনো দিন অন্তত ৫ হাজার দর্শণার্থী ভ্রমণ করেছেন। আর সপ্তাহান্তিক দিনগুলোতে অর্থাৎ প্রত্যেক ছুটির দিনে অন্তত ১২ হাজার মানুষ হাজিয়া সোফিয়া মসজিদ পরিদর্শন করেছেন।

মুস্তফা ইয়াভুজ নামে ঐতিহাসিক হাজিয়া সোফিয়া মসজিদের প্রতিবেশী ‘ব্লু মসজিদের’ মুফতি বলেন, তুরস্ক এবং বিশ্বের মানুষদের জন্য হাজিয়া সোফিয়া অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থনার জায়গা। এটা ইসলামি পরিচয়ের অংশ। বিভিন্ন দেশের ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞা শেষ হলে হাজিয়া সোফিয়া মসজিদে ভ্রমণকারীদের সংখ্যা ভবিষ্যতে আরও বৃদ্ধি পাবে।

ডেইলি সাবাহর খবরে বলা হয়েছে, হাজিয়া সোফিয়া মসজিদের প্রতি তুরস্কের নাগরিকরাও ব্যাপক আগ্রহ দেখাচ্ছেন। গত ১ জুলাইয়ে তুরস্কে কারফিউ প্রত্যাহারের পর অসংখ্য মানুষ প্রতিদিন মসজিদটিতে ভ্রমণ করছেন।

 

 

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.