মোমতাজই হচ্ছেন সভাপতি, বিকেলে সম্পাদক পদের ভোট পুনর্গণনা

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে (২০২২-২৩) সভাপতি পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের প্রার্থী জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির ভোটে এগিয়ে রয়েছেন।
নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ পদে মোমতাজ উদ্দিন ফকিরের জয় অনেকাংশেই নিশ্চিত।
নির্বাচনে সভাপতি পদে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের প্রার্থী জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. বদরুদ্দোজা।

তবে বারের নতুন সাধারণ সম্পাদক কে হচ্ছেন, এ নিয়ে এখনো দ্বিধাদ্বন্দ্ব রয়েছে। নির্বাচনের ভোট গণনায় সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা জানিয়েছেন, এ পদে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে।
আওয়ামীপন্থি আইনজীবীদের অভিযোগ, ভোটে কারচুপি হয়েছে।
বাতিল ভোটও হিসাবে ধরা হয়েছে। তারা ভোট পুনর্গণনার দাবি তুলেছেন।
এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রাতে আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে যায়।

সাধারণ সম্পাদক পদে বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের প্রার্থী ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল কয়েক ভোটে এগিয়ে রয়েছেন বলে জানা গেছে।
তবে ভোট নিয়ে অভিযোগ তুলেছেন অপর সম্পাদক পদের প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. আবদুন নুর দুলাল।
তার অভিযোগ, এ পদে ভোট কারচুপি করা হয়েছে এবং বাতিল ভোটও গণনায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
অ্যাডভোকেট মো. আবদুন নুর দুলাল সাধারণ সম্পাদক পদে ভোট পুনর্গণনার দাবি তুলেছেন নির্বাচন পরিচালনায় গঠিত নির্বাচন উপ-কমিটির আহ্বায়ক বরাবর।

এ দাবির পরিপ্রেক্ষিতে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ ওয়াই মশিউজ্জামানের নেতৃত্বে গঠিত সাত সদস্যের নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটি এ পদে দুই প্রার্থীর উপস্থিতিতে শুক্রবার (১৮ মার্চ) বিকেল তিনটায় ভোট পুনর্গণনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গণনা শেষে সম্পাদক পদে বিজয়ী প্রার্থীর নামসহ নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করা হবে বলেও কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

দেশের সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীদের এ সংগঠনের ২০২২-২৩ কার্যকরী কমিটির নির্বাচনের দুদিনব্যাপী ভোটগ্রহণ চলে বুধ ও বৃহস্পতিবার। মোট ৮ হাজার ৬২৩ জন ভোটারের মধ্যে এবার দুদিনে ভোট দিয়েছেন ৫ হাজার ৯৯১ জন ভোটার। এর মধ্যে বুধবার (১৬ মার্চ) ৩ হাজার ৩০০ জকন এবং প্রথম দিন মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) ভোট দেন ২ হাজার ৮১৭ জন ভোটার।

আইনজীবী সমিতি ভবনের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে স্থাপিত ভোটকেন্দ্রের ৫১টি বুথে এ ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) দুপুর থেকে শুরু হয় ভোট গণনা। রাতেই ফল ঘোষণার কথা থাকলেও সাধারণ সম্পাদক পদে ভোট পুনর্গণনার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে তা পিছিয়ে যায়।

সভাপতি, সহ-সভাপতি (দুটি পদ), সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ, সহসম্পাদক (দুটি পদ) এবং সাতটি সদস্য পদসহ মোট ১৪টি পদে এক বছর মেয়াদে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিতে নির্বাচন হয়।

নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট সূত্রের তথ্য অনুযায়ী, সমিতির ১৪টি পদের মধ্যে সভাপতি, সহ-সভাপতি দুটির পদ এবং সদস্যের তিনটি পদসহ ছয়টি পদে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের (সাদা প্যানেল) প্রার্থীরা ভোট গণনায় এগিয়ে আছেন। অন্যদিকে সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ, সহসম্পাদকের দুটি পদ এবং সদস্যের চারটি পদসহ মোট আটটি পদে এগিয়ে আছেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের (নীল প্যানেল) প্রার্থীরা।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.