সৌদি আরবের চাপেই ইরানের প্রতি কঠোর হচ্ছে পাকিস্তান

২০১৮ সালে পাকিস্তানে নতুন সরকার গঠন করে ইমরান খানের পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ পিটিআই দল।
ওই সময় ইমরান খানের সরকারকে উঠে দাঁড়াতে পাকিস্তানকে বড় অঙ্কের আর্থিক সহায়তা দেয় সৌদি আরব।
কিন্তু তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ও মালয়েশিয়ার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রিসেপ তাইপ এরদোয়ানের সঙ্গে সাক্ষাতের ঘটনায় রিয়াদ-ইসলামাবাদ সম্পর্কে ঘুন ধরে।
ইমরান খান কুয়ালালামপুর সামিটে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিলে পাকিস্তানের কাছ থেকে ঋণের অর্থ ফেরৎ চায় ক্ষুব্ধ সৌদি আরব।

তবে গত বছরের অক্টোবরে সৌদি আরব সফরে যান ইমরান খান।
তার এই সফরের মধ্য দিয়ে দু’দেশের সম্পর্কের বরফ গলতে শুরু করে।
ওই সফরে পাকিস্তানকে ৪২০ কোটি ডলারের অর্থ সহায়তার ঘোষণা দেয় সৌদি আরব।

আগামী ২৩ মার্চ পাকিস্তানে জাতীয় দিবস।
দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, জাতীয় দিবসের প্যারেডে গেস্ট অব অনার হিসেবে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের উপস্থিতি রাখতে তোড়জোড় শুরু করেছে ইসলামাবাদ।
এ নিয়ে উভয়পক্ষ একে অন্যের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.