সুখবর! এবার ভিসা ছাড়াই বিশ্বের ৪১টি দেশে ভ্রমণের সুযোগ বাংলাদেশিদের

বাংলাদেশের বাসিন্দাদের জন্য সুখবর। ভিসার জন্য ঝামেলার দিন শেষ। পাসপোর্ট থাকলেই এবার সহজেই বিশ্বের ৪১টি দেশে যেতে পারবেন তারা। ওই দেশগুলিতে যাওয়ার জন্য আগে থেকে আর ভিসা নিতে হবে না ওপার বাংলার পাসপোর্টধারীদের। যে ৪১টি দেশ বাংলাদেশিদের এই সুযোগ দিয়েছে সেগুলির মধ্যে আছে আফ্রিকার ১৬টি দেশ। এছাড়াও Caribbean এর ১১টি , Oceania-র সাতটি, এশিয়ার ছয়টি এবং দক্ষিণ আমেরিকার একটি দেশ আগে থেকে কোনও ভিসা (prior visa) ছাড়াই যেতে পারবেন বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা।

লন্ডনের Henley Passport Index-র তালিকায় চার ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। ২০২১ সালে বিশ্ব সূচকে বাংলাদেশের পাসপোর্টের অবস্থান ছিল ১০৮তম স্থানে। সেই দেশের নাগরিকরা ভিসা ফ্রি বা অন-অ্যারাইভাল ভিসা সুবিধা পেতেন ৪০টি দেশে। ২০২২ সালে বাংলাদেশ উঠে এসেছে ১০৪ তম স্থানে। এবার লন্ডনের ওই সংস্থার সূচকের ভিত্তিতে ৪১টি দেশে এই সুবিধা পাবেন বাংলাদেশিরা। এবার থেকে ওই স্থানে যেতে আগে থেকে ভিসা নিতে না তাদের। ওই জায়গাগুলির মধ্যে ২০ টি স্থানে পোঁছানোর পরে visa পাবেন তারা। এই সঙ্গে শ্রীলঙ্কার জন্য এবার থেকে পাওয়া যাবে e-tourist visa।
জানা গিয়েছে, Bahamas, Barbados, ভুটান, British Virgin Islands, Cook Islands, ডমিনিকা, ফিজি, Grenada, হাইতি, ইন্দোনেশিয়া, জামাইকা, Lesotho, Micronesia, Montserrat, Niue, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস, Saint Vincent অ্যান্ড the Grenadines, The Gambia, ত্রিনিদাদ এবং টোবাগো ও Vanuatu দেশে ভিসা ছাড়াই যেতে পারবেন বাংলাদেশিরা।

এছাড়াও বলিভিয়া, Burundi, Cape Verde Islands, Comoro Islands, Guinea-Bissau, মাদাগাসকার, মালদ্বীপ, Mauritania, Mozambique, নেপাল, Rwanda, Samoa, সেনেগাল, Seychelles, Sierra Leone, Somalia, Timor-Leste, Togo, টুভালু এবং উগান্ডতে গিয়েই ভিসা পেয়ে যাবেন বাংলাদেশিরা।

এদিকে বিশ্বের পাসপোর্ট সূচকে নবম দুর্বলতম হিসাবে স্থান পেয়েছে বাংলাদেশের পাসপোর্ট। সবচেয়ে সেরা হিসাবে এই তালিকায় নাম আছে জাপানের। একজন জাপানী পাসপোর্টধারী বিশ্বের ১৯৩টি জায়গা গিয়ে on-arrival visa পাওয়ার সুবিধা ভোগ করেন। জাপানের পরেই এই তালিকায় নাম আছে সিঙ্গাপুর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার। জার্মানি এবং স্পেন আছে তৃতীয় স্থানে, তারা ১৯০টি জায়গায় যাওয়ার ক্ষেত্রে এই সুবিধা পান। উল্লেখ্য, চলতি বছরে প্রকাশিত ওই সূচক অনুসারে, একজন এশিয়ান পাসপোর্টধারী অন্য যেকোনও দেশের পাসপোর্টধারীর তুলনায় বেশি বিশ্ব ভ্রমণের স্বাধীনতা পেয়েছেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.