বিল গেটসের সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুললেন মেলিন্ডা

২৭ বছর একসঙ্গে পথচলার ইতি টেনে গত বছর আলাদা হয়ে যান বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস (৬৫) ও তার স্ত্রী মেলিন্ডা গেটস (৫৬)। আচমকাই এ বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন তারা।

বিচ্ছেদের একবছর পর যুক্তরাষ্ট্রের ফরচুন সাময়িকীকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মেলিন্ডা জানিয়েছেন, বিলের সঙ্গে তার বিচ্ছেদের ঘটনাটি অবিশ্বাস্য রকমের বেদনাদায়ক ছিল। গত সোমবার সাক্ষাৎকারটি প্রকাশিত হয়।

বিচ্ছেদের কারণ জানিয়ে মেলিন্ডা বলেন, কিছু কারণ ছিল। যে জন্য তিনি আর এ বিয়ের সম্পর্কে থাকতে পারেননি। এ অবস্থায় যা করার দরকার ছিল, তা করতে প্রয়োজনীয় ব্যক্তিগত গোপনীয়তার সুযোগ করে দেয় করোনা মহামারি। এটি নানাভাবে অবিশ্বাস্য রকমের বেদনাদায়ক ছিল।

শেষ দিকে বিল গেটসের সঙ্গে সম্পর্ক কেমন যাচ্ছিল, এমন প্রশ্নের জবাবে মেলিন্ডা বলেন, আমি যে ব্যক্তির কাছ থেকে দূরে সরে যাচ্ছিলাম, তার সঙ্গেই কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলাম।
এমনটিও হয়েছে যে আমি সকাল ৯টায় কাঁদছি, আর তার পর যাকে আমি ছেড়ে যাচ্ছি, তার সঙ্গে সকাল ১০টায় আমাকে ভিডিও কনফারেন্স করতে হচ্ছে। আমাকে এমনটি, আমার সেরাটা দেখাতে হয়েছে।

তিনি বলেন, লোকদেখানো এ বিষয় আমাকে প্রতিদিন করতে হচ্ছিল। প্রতিটা দিন আমাকে আমার সেরাটা দেখাতে হচ্ছিল।

মূলত প্রেম করে বিয়ে করেছিলেন বিল ও মেলিন্ডা গেটস। কাজের সুবাদে তাদের পরিচয় হয়েছিল। পরিচয় থেকে পথচলা। সাত বছর প্রেমের পর দুজন ঠিক করেন এক ছাদের নিচে থাকবেন। এভাবে কেটে গেছে ২৭ বছর। এই সময়ে তাদের ঘর আলো করে এসেছেন তিন সন্তান। সেই সম্পর্ককে আর বয়ে নিয়ে যেতে পারেননি ধনকুবের এ দম্পতি।

গেটস দম্পতির তিন সন্তান— জেনিফার (২৫), রোরি (২১) ও ফোয়েব (১৮)।

২০০০ সালে দুজনে মিলে গড়ে তোলেন বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন। এটি বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দাতব্য সংস্থা। এ ফাউন্ডেশন বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে কাজ করছে।

বিশ্বজুড়ে সংক্রামক রোগব্যাধির বিরুদ্ধে লড়াই ও শিশুদের টিকাদানে উৎসাহিত করতে কোটি কোটি ডলার ব্যয় করছে এ ফাউন্ডেশন।

কিন্তু যে পথ বেঁধে দিয়েছিল বন্ধন, তার বিচ্ছেদের ঘোষণা এল ২০২১ সালের মে মাসে। দুজনার দুটি পথ দুটি দিকে গেল বেঁকে। দীর্ঘ ২৭ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতিটানার ঘোষণা দেন বিল ও মেলিন্ডা।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.

EN