ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এরদোয়ানের দাওয়াত

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এরদোয়ানের দাওয়াত।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাহার সত্ত্বেও স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার সিরিয়া সীমান্তে আরও সেনা পাঠিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তুরস্কে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি।

এএফপির খবরে জানানো হয়, স্থানীয় সময় গতকাল সন্ধ্যায় টেলিফোন সংলাপে ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ জানান এরদোয়ান। আগামী বছর, অর্থাৎ ২০১৯ সালে ট্রাম্পকে তুরস্ক সফরের আমন্ত্রণ জানান তিনি। ট্রাম্প জানান, এরদোয়ান কোনো সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনার কথা বলেননি। ভবিষ্যতে এরদোয়ান ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করতে চান।

এরদোয়ানের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন গতকাল সাংবাদিকদের বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর প্রতিনিধিরা এ সপ্তাহে আসতে পারেন। তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা আগামী জানুয়ারি মাসের শুরুতে ওয়াশিংটনে যাবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইটে বলেন, এরদোয়ান বলেছেন, তিনি শেষ আইএস জঙ্গিকেও নির্মূল করবেন।

গত বুধবার আকস্মিক এক ঘোষণায় ট্রাম্প সিরিয়া থেকে প্রায় দুই হাজার সেনা নিজ দেশে ফিরিয়ে আনার কথা জানান। সিরিয়ায় জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে যুদ্ধে সাহায্য করার জন্য ওই সেনাসদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছিল।

ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তে নাখোশ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদেশগুলো। তবে ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছে দেশটির আরেক মিত্র তুরস্ক। কারণ, যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের কারণে সিরিয়ার কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে তুরস্ক হামলা আরও জোরদার করতে পারবে। তুরস্ক কুর্দি বাহিনীকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী মনে করলেও ওই বাহিনীকে অস্ত্র ও প্রশিক্ষণ দিয়ে সহায়তা করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে কুর্দি বাহিনীর ভূমিকাও গুরুত্বপূর্ণ।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.