এনআইডির সঙ্গে তথ্য মিল না থাকলে পাসপোর্ট করা যাবে না

ই-পাসপোর্টের আবেদনপত্রের সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্রের নামসহ অন্যান্য তথ্য না মিললে পাসপোর্ট প্রক্রিয়া হয় না। এরপরও অনেকে পাসপোর্ট আবেদনে দিচ্ছেন এক তথ্য আর জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) তার আরেক তথ্য। এই তথ্যের গরমিল থাকায় পাসপোর্ট পেতে সমস্যা হচ্ছে অনেকের। পাসপোর্ট পেতে বিলম্ব হওয়ায় হতাশা আর ক্ষোভও প্রকাশ করেন অনেকে। অথচ বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর বরাবরই বলছে, পাসপোর্ট আবেদনে দেওয়া তথ্যের সঙ্গে এনআইডির তথ্য মিল থাকতে হবে, নইলে পাসপোর্ট হবে না।

এই জটিলতা নিরসনে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। সংস্থাটি বলছে, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের সঙ্গে এনআইডির সার্ভার যুক্ত। যদি পাসপোর্ট আবেদনকারীর নাম, বাবা-মায়ের নাম ও স্থায়ী ঠিকানা এনআইডির সঙ্গে মিল না থাকে, তাহলে পাসপোর্ট আর ইস্যু হয় না।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশ থেকে যারা পাসপোর্টের আবেদন করবেন তাদের দেওয়া তথ্যের সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) নাম, বাবা-মায়ের নাম ও বয়স মিল থাকতে হবে। যদি তথ্যে গরমিল থাকে তাহলে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্যই গ্রহণ করা হবে।

অধিদপ্তরের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের ভাষ্য, পাসপোর্ট আবেদনকারীর এনআইডি বা জন্ম নিবন্ধন সার্টিফিকেটের সঙ্গে তার নামের বানানসহ সব তথ্যের মিল থাকতে হবে। তা না হলে পাসপোর্টের আবেদন গ্রহণ করা হবে না। যদি কারো এনআইডির তথ্যের সমস্যা থাকে, তাহলে আগে সেটি সংশোধন করতে হবে। তারপর সেই সংশোধিত এনআইডি দিয়ে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে হবে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.