নাটোর পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালককে আদালতে তলব

সেবা গ্রহীতাকে হয়রানির অভিযোগে নাটোর পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আলী আশরাফকে তলব করেছে নাটোরের সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালত।

রোববার নাটোর সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক মো: মোসলেম উদ্দিন এই আদেশ দেন।

নাটোর আদালত সূত্রে জানা গেছে, রওশন আরা বেগম নামে এক সেবাপ্রার্থী তার পাসপোর্ট নবায়ন করার জন্য গত ৮ সেপ্টেম্বর নাটোর পাসপোর্ট অফিসে আবেদনপত্র জমা দেন। কিন্তু নাটোর পাসপোর্ট অফিস ওই দিনই রওশন আরা বেগমের আবেদন বাতিল করে আবেদনের সঙ্গে কোর্ট এফিডেভিট জমা দিতে হবে উল্লেখ করে তার আবেদন বাতিল করেন। কিন্তু এর আগেও রওশন আরা বেগমের অন্য দুটি পাসপোর্টে প্লেস অব বার্থ এনআইডি কার্ডে রাজশাহী এবং এমআরপি পাসপোর্ট-এ নাটোর উল্লেখ করা হয়। এরপরেও কেন সেবাপ্রার্থীকে হয়রানী এনিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন রওশনআরা বেগম। আদালত শুনানী শেষে রওশনআরা বেগমের এফিডেভিট এর প্রয়োজন নেই বলে উল্লেখ করেন। এফিডেভিট প্রয়োজন না থাকা সত্বেও রওশন আরা বেগমকে পাসপোর্ট অফিস হয়রানী করেছে বলে আদালতের প্রতিয়মান হয়।

আদেশে আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর নাটোর পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আলী আশরাফের বিরুদ্ধে কেন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হবে না, তা সশরীরে হাজির হয়ে আদালতকে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ মানবাধিকার নাটোর জেলা শাখার সভাপতি অ্যাড. সোহেল রানা বলেন, সেবা গ্রহীতাকে অযথা হয়রানি করা চরম মানবাধিকার লঙ্ঘন।

এছাড়া নাটোর পাসপোর্ট অফিসের অনিয়ম, দুর্নীতি ও অযথা হয়রানির বিষয় গণমাধ্যমে উঠে এসেছে তাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.